শনিবার থেকে রাজ্যে শুরু করোনার ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ, উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

শনিবার ১৬ নভেম্বর থেকে রাজ্যে শুরু হতে চলেছে করোনার ভ্যাকসিন (corona vaccine) দেওয়ার কাজ। সূত্রের খবর, রাজ্যের কেন্দ্রগুলিতে সকাল নটা থেকে শুরু হবে ভ্যাকসিন দেওয়ার কাজ। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে নবান্ন থেকে পুরো বিষয়টির তদারকি করা হবে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (mamata banerjee) ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে টিকাকরণে উপস্থিত থাকবেন শনিবার বেলা একটায়।

রাজ্যে আসা ভ্যাকসিনের মধ্যে প্রথম দফায় কলকাতার জন্য সব থেকে বেশি প্রায় ৯৩৫০০ ভ্যাকসিন বরাদ্দ করা হয়েছে।  সরকারি হাসপাতালগুলিকেই করোনার ভ্যাকসিন দেওয়ার কেন্দ্র হিসেবে বেছে নেওয়া হয়েছে। এর মধ্যে সিএনএমসির জন্য ১৬২০, এনআরএস-এর জন্য ৩৩৫০, এসএসকেএম-এর জন্য ৪২৫০, চিত্তরঞ্জন সেবাসদনের জন্য ৮৫০, আরজি করের জন্য ৪২৫০ এবং সিএমসিএইচের জন্য ৩৯৯০ টি ডোজ বরাদ্দ করা হয়েছে।

কেন্দ্রের  নির্দেশিকা অনুযায়ী, প্রথম পর্যায়ে কর্মরত চিকিৎসক, নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীদের ভ্যাকসিন দেওয়া হবে। এরপর দেওয়া হবে পুলিশকর্মীদের। পুরসভার কর্মী ও পরিবহণকর্মীদের ভ্যাকসিন আগে দেওয়া হবে। এরপর তালিকায় রয়েছে ৫০ ঊর্ধ্ব এবং কোমর্বিটিডিযুক্ত দেশবাসী।  জানা গিয়েছে, শুরু থেকেই কো উইন অ্যাপের মাধ্যমে ভ্যাকসিন গ্রাহকদের নাম, ঠিকানা এবং ফোন নম্বর নথিভুক্ত করা হবে।

নবান্ন সূত্রে জানা যাচ্ছে,  শনিবার বেলা একটায়  ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে উপস্থিত থাকবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি গোটা বিষয়টির তদারকি করবেন। রাজ্যে ইতিমধ্যেই টিকাকরণের জন্য ৪০৮৯ টি কেন্দ্র প্রস্তুত রাখা হয়েছে। প্রয়োজন অনুযায়ী এই সংখ্যা বাড়ানো, কমানো হতে পারে। ইতিমধ্যেই প্রায় ৪৪ হাজার স্বাস্থ্যকর্মীকে এব্যাপারে প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে।

দিন ঘোষণা ফেব্রুয়ারিতেই, এপ্রিলে শেষ প্রক্রিয়া! ইঙ্গিত উপ-নির্বাচন কমিশনারের

প্রথমদিন প্রায় ৩৫ হাজার মানুষ কে টিকা দেওয়া হতে পারে বলে জানা গিয়েছে। বেসরকারি হাসপাতালগুলিও টিকাকরণে যোগ দেওয়ার ব্যাপারে ইচ্ছাপ্রকাশ করেছে। বেসরকারি হাসপাতাল নিজেদের কর্মীদের টিকা দেওয়ার পাশাপাশি সাধারণ মানুষকেও তারা টিকা দেবে বলে জানিয়েছে। তবে এব্যাপারে তাদেরকে রাজ্য সরকারের কাছে আবেদন জানাতে হবে। যেসব হাসপাতালের কর্মী সংখ্যা ৫০০-র বেশি, রাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তারা সেখানে পরিদর্শনের পরে সরকারের তরফে এই বিষয় অনুমতি দেওয়া হবে।