ফের অ্যাকাউন্টে জমা পড়তে চলেছে গ্যাসের ভর্তুকি! কীভাবে জানবেন টাকা জমা পড়েছে কিনা, বিস্তারিত

নরেন্দ্র মোদী ভারতের শাসন ক্ষমতার অধীনে আসার পর 2015 সালে ভারতে প্রথম চালু হয়েছিল এলপিজি গ্যাসের ভর্তুকি। যার মাধ্যমে গ্রাহকরা তাদের গ্যাসের মূল্যের অতিরিক্ত ভর্তুকি সোজাসুজি তাদের ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে পেয়ে যেতেন। অবশ্য তার জন্য ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টের সঙ্গে আধার লিঙ্ক থাকতে হতো। কিন্তু ২০২০ সালে করোণা মহামারীর ফলে এই এলপিজি গ্যাসের ভর্তুকি বন্ধ করে দিয়েছিল কেন্দ্রীয় সরকার। যার ফলে ভালোই লাভবান হয়েছিল ভারত সরকার। এবার আবারো এলপিজি গ্যাসের ভর্তুকি দিচ্ছে কেন্দ্র সরকার। তার জন্য যারা যথাযোগ্য তারা আবারও পেয়ে যাবেন এই ভর্তুকির টাকা।

ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে সিলিন্ডার প্রতি গ্রাহকেরা আগে পেতেন ৭৯.২৬ টাকা ভর্তুকি। কেউ কেউ তখন ভর্তুকি হিসেবে পেতেন ১৫৮.৫২ টাকা অথবা ২৩৭.৭৮ টাকা। অবশ্য গত দুই বছর আগে গ্যাসের দাম ছিল প্রায় ৬০০ থেকে ৭০০ টাকার মধ্যে। গ্রাহকরা বছরের ১২ টি সিলিন্ডার ক্রয় করতে পারতেন এবং এই বারোটি সিলিন্ডারের বিনিময় গ্রাহকেরা পেতেন ভর্তুকি। প্রতি মাসের ১ তারিখে এলপিজি গ্যাসের সিলিন্ডারের দাম পুনঃনির্বাচন করা হয়।

এলপিজি গ্যাসের ভর্তুকি আপনার অ্যাকাউন্টে এলো কিনা তা কিভাবে জানবেন জেনে নিন বিস্তারিত ভাবে:-

১| এই ভর্তুকি পরিষেবা সম্পর্কে জানার জন্য গ্রাহকের মোবাইলে বা কম্পিউটারে থাকতে হবে নেট পরিষেবা।

২| এরপর ব্রাউজার এ গিয়ে www.mylpg.in এই ওয়েবসাইটে যেতে হবে।

৩| এই ওয়েবসাইটে গিয়ে ভারতে যেসব এলপিজি গ্যাস সংস্থাগুলি প্রচলিত সেই কোম্পানী গুলির ছবি আপনি দেখতে পাবেন। আর গ্রাহক যে সংস্থার সিলিন্ডারটি ব্যবহার করেন সেখানে গিয়ে ক্লিক করতে হবে।

৪| এরপর নতুন ট্যাব খুললেই সেই সংস্থার ওয়েবসাইট টি খুলে যাবে এবং সেখানে সাইন ইন ও নিউ ইউজার এর অপশন টি স্ক্রিনে উঠে আসবে।

৫| আর এই প্রসেস শেষ হওয়ার পর একটি নতুন পেজ খুলবে সেখানে ডানদিকে সিলিন্ডার বুকিং হিস্ট্রি আসবে সেই অপশনই আপনাকে ক্লিক করতে হবে।

৬| এখান থেকেই সেই গ্রাহক জানতে পারবেন তিনি কোন সিলিন্ডারে কত টাকা পেয়েছেন এবং কোন সময় সেই টাকাটা ব্যাঙ্ক অ্যাকাউন্টে ঢুকেছে।