দাঁড়াতে হবে না আর RTO অফিসের লম্বা লাইনে এবার থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স পাবেন খুব সহজেই

আপনার কী নিজস্ব একটি গাড়ি আছে? তাহলে আপনার নিজের একটি ড্রাইভিং লাইসেন্স (driving licence) করানো একান্ত প্রয়োজনীয়। সড়ক পরিবহণ মন্ত্রক একটি বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে ড্রাইভিং লাইসেন্সের (Driving license) ক্ষেত্রে নতুন একটি নিয়ম জারি করেছে। এই নিয়মের ফলে লাইসেন্স আবেদনকারীকে আর আরটিও (RTO) অফিসে যেতে হবে না। ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ড্রাইভিং পরীক্ষায় পাশ করলেই মিলবে ড্রাইভিং লাইসেন্স।

ড্রাইভিং লাইসেন্স পাওয়ার ব্যাপারে সড়ক পরিবহনমন্ত্রকের আগেও বেশ কিছু নিয়মে পরিবর্তন এনেছিল। অনলাইনেও আবেদন করা যাচ্ছিল ড্রাইভিং লাইসেন্স। বর্তমানে যেখানে ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ নেওয়া হবে সেই প্রশিক্ষণে পাশ করলেই অডিটের মাধ্যমে সেই তথ্য পৌঁছে যাবে আরটিও অফিসে। আর ব্যক্তিটিও ড্রাইভিং লাইসেন্স পেয়ে যাবেন। এই প্রসঙ্গে এক ব্যক্তি জানিয়েছেন লাইসেন্স পাওয়ার পুরো পদ্ধতিটাই হবে প্রযুক্তি নির্ভর।

যেসব ড্রাইভিং সেন্টার সড়ক পরিবহন মন্ত্রকের এই নির্দিষ্ট শর্তাবলী মেনে নেবে, তাঁদেরই বৈধতা দেবে আরটিও অফিস। ড্রাইভিং সেন্টারগুলি আরটিও অফিস দ্বারা বৈধতা পাওয়ার পর সেখানে আইটি ও বায়োমেট্রিক পদ্ধতি থাকা বাধ্যতা মূলক। ওই বৈধ প্রশিক্ষণ কেন্দ্রগুলিকে একটি নির্দিষ্ট সিলেবাস মেনেই ব্যাক্তিদের প্রশিক্ষণ দেবে। কেন্দ্রীয় সড়ক পরিবহণের এই নিয়ম মেনে যে সমস্ত ব্যক্তিরা লাইসেন্স পাবেন তারা সরকারি চাকরির পরীক্ষায় বসতে পারবেন। সেক্ষেত্রে তাদের কোনো অসুবিধা হবে না কারণ রাজ্য সরকার এই লাইসেন্সকে গ্রাহ্য করবে।

আগামী জুলাই মাস থেকে সড়ক পরিবহন মন্ত্র কর্তৃক এই নিয়ম চালু হতে চলেছে। অর্থাৎ আগামী জুলাই মাস থেকে ড্রাইভিং লাইসেন্স পেতে গেলে কোনো ব্যক্তিকে আরটিও অফিসে যেতে হবে না। ড্রাইভিং প্রশিক্ষণ শেষ হওয়ার পরে পরীক্ষায় পাশ করার পর ওই প্রশিক্ষণ কেন্দ্র থেকেই ‌ পাবেন ড্রাইভিং লাইসেন্স। ‌