এবার থেকে বদলে গেল বাইকের পিছনে বসার নিয়ম, বাইক চালনা নিয়ে নতুন নির্দেশিকা জারি কেন্দ্রের

দেশে প্রতিদিন একটা না একটা সড়ক দুর্ঘটনা ঘটেই চলেছে। প্রতিদিনই কমবেশি মানুষ মারা যাচ্ছে তবে এবার চুপ করে বসে নেই প্রশাসন দুর্ঘটনা কমাতে কেন্দ্রীয় পরিবহন দপ্তর বেশ কিছু সিদ্ধান্ত নিয়েছে জানা গিয়েছে গাড়ি তৈরি ও গাড়ির ফিচারস এ এবার থেকে বেশ কিছু পরিবর্তন লক্ষ্য করা যাবে। কেন্দ্রীয় পরিবহন দপ্তর জাতীয় সড়কে নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে বেশ কিছু পরিবর্তন আনতে চলেছে।

বাইক চালকদের জন্য নতুন নির্দেশিকা জারি হয়েছে ইতিমধ্যেই। নতুন এই নির্দেশনায় বলা হয়েছে যে বাইক চালক এর পিছনের সিটে যে ব্যক্তি বসবেন তার ক্ষেত্রে এবার থেকে বেশ কিছু নিয়ম মেনে চলতে হবে। সেই নিয়ম কী কী, দেখে নিন বিস্তারিত।

১) বাইক চালক এর পিছনের সিটে হ্যান্ড হোল্ড:-

সরকারি নির্দেশিকা অনুযায়ী এবার থেকে বাইক চালকের পিছনের সিটের দুপাশে হ্যান্ড হোল্ড লাগানো বাধ্যতামূলক। এটি মূলত পিছনের সিটের আরোহী নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে করা হচ্ছে। চালক যদি হঠাৎ ব্রেক কষে সেক্ষেত্রে হ্যান্ড হোল্ড সাহায্য করবে পিছনে বসে থাকা আরোহী-কে। এর আগে অবশ্য এরকম কোন অসুবিধা ছিল না। এবার চালকের পিছনের সিটে বসা ব্যক্তির জন্য দু’পাশেই পাদানি বাধ্যতামূলক করা হয়েছে। এছাড়াও বাইকের পিছনে চাকার বা দিকের অংশে কভার লাগাতে বলা হচ্ছে, এতে মহিলাদের কাপড় ও ওড়না জড়িয়ে দুর্ঘটনা ঘটার সম্ভাবনা অনেকাংশে কমে যাবে।

২) কন্টেনার এর নিয়ম বদল :-

এবার থেকে কন্টেনারের বদলানো চলছে কেন্দ্রীয় সরকার বাইক কন্টেনার আগের থেকে অনেকটাই ছোট করা হচ্ছে যার দৈর্ঘ্য ৫৫০ মিলিমিটার এবং প্রস্থ ৫১০ মিলি মিটার এবং উচ্চতা হবে ৫০০ মিলিমিটার। এই নিয়ম মেনে চললেই বাইকের পিছনে তবে একজনকে বসাতে পারবেন। যদি এই নিয়ম মানা না হয় তাহলে একাই বাইক চালাতে হবে এবার থেকে। নতুন এই নিয়ম না মানা হলে অপরাধ হিসেবে বিবেচিত হবে।

৩) টায়ার সম্পর্কে নতুন নির্দেশিকা:-

কেন্দ্রীয় সরকারের নতুন নির্দেশিকায় জানানো হয়েছে এবার থেকে সর্বোচ্চ ৩.৫ টন ওজন পর্যন্ত গাড়িতে টায়ার প্রেসার মনিটারিং সিস্টেম রাখার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে। এটি একটি সেন্সর সিস্টেম, এর সাহায্যে গাড়ির চাকায় কখন কতটা হাওয়া রয়েছে তা বুঝতে পারা যাবে। এছাড়াও গাড়িতে টায়ার সারাবার টুলকিট মজুত রাখতে বলা হয়েছে নতুন নিয়মে।