পয়লা জানুয়ারি থেকে GST আইনে আসতে চলেছে বড় পরিবর্তন, জেনে নিন কী প্রভাব পড়বে আপনার জীবনে

আর কিছুদিন পরেই নতুন বছর শুরু হয়ে যাবে। নতুন করে যাত্রা শুরু হয়ে যাবে আমাদের। নতুন আশা বুকে বাঁধে যাত্রা করব আমরা নববর্ষের দিকে। তবে নতুন বছর আসতে না আসতেই আরো একবার করের বন্ধনে আবদ্ধ হতে চলেছি আমরা। জানুয়ারি মাসের প্রথম দিন থেকে জিএসটি কর কার্যকর হতে চলেছে বেশ কিছু পণ্যে।

ইতিমধ্যেই জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, জুতো এবং জামার করে বাড়িয়ে দেওয়া হয়েছে ৫% থেকে ১২ শতাংশ। কার্যকর করা হবে পরের বছর থেকে। শুধু তাই নয় অনলাইনে যে খাবার অর্ডার করি আমরা, সেখানেও বাড়তি কর দিতে হবে আমাদের। রেস্তোরাঁ পরিষেবাগুলিকে সরকারের কাছে জিএসটি সংগ্রহ এবং জমা করার জন্য দায়বদ্ধ করা হবে।

দেশে এমন বিপুল সংখ্যক রেস্তোরাঁ রয়েছে যাদের রেজিস্টার করা নেই। এছাড়াও এমন কিছু অনলাইন অ্যাপ আছে যেমন জম্যাটো এবং সুইগী, এদের কোন আলাদা করে স্বীকৃতি নেই। এসব ক্ষেত্রে জিএসটির ভাগ সরকারের কাছে পৌঁছাচ্ছে না। প্রতিবছর সরকারকে দুই হাজার কোটি টাকা পর্যন্ত ক্ষতির সম্মুখীন হতে হচ্ছে।

যেহেতু এটি কোন নতুন কর নয়, তাই গ্রাহকদের বাড়তি বোঝা কিছু বাড়ছে না। এর আগেও কিছু শতাংশ কর নেওয়া হয়েছিল গ্রাহকদের কাছ থেকে। এখন পার্থক্য শুধুমাত্র যে ট্যাক্সটি ডেলিভারি পার্টি থেকে নেওয়া হবে রেস্টুরেন্ট থেকে নয়। এই সবকিছুর জন্য দায়ী সেই রেস্তোরাঁগুলি, যারা সরকারকে এতদিন জিএসটি দেয়নি। সব মিলিয়ে নতুন বছরে অনলাইনে খাবার অর্ডার দেওয়া ব্যয়বহুল হবে বলেই মনে করা হচ্ছে।