একবার নয়, দুবার নয়, রতন টাটার জীবনে চার বার এসেছিল ভালোবাসা, কিন্তু এই কারনে হয়নি বিয়ে।

আপনাদের দেশে প্রচুর ভালো ভালো ব্যাবসায়িক রয়েছে, যারা পুরো দেশে নিজের একটা আলাদাই ছাপ ছেড়ে গেছেন। আজ আমরা এমনই এক ভারতীয় বিজনেসম্যান এর সম্বন্ধে আপনাদের জানাবো, তার লোকপ্রিয়তা পুরো ভারত জুড়ে রয়েছে আর আমরা যার সম্বন্ধে কথা বলছি তিনি হলেন ভারতের নামকরা বিজনেসম্যান “রতন টাটা”।তার জন্ম ২৮ডিসেম্বর ১৯৩৭ এ সুরাটে হয়েছিল।টাটা গ্রুপের চেয়ারম্যান দেশজুড়ে নিজের আলাদাই একটা নাম বানিয়েছেন এবং তিনি নিজের পরিশ্রমে অনেক উঁচু লক্ষেও পৌঁছেছেন। টাটা গ্রুপকে অনেক উঁচুতে পৌঁছানোর পর ২০১৩ তে তিনি নিজের কার্যভার সমাপ্ত করলেন।

ব্যাবসার দিক থেকে রতন টাটা অনেক নাম কামিয়েছেন। কিন্তু এটা তার জীবনে একটি অনেক বড় দিক যে তিনি, ভালোবাসার দিক থেকে সর্বদাই অসফল হয়েছেন। কিছুদিন আগেই টিভির একটি ইন্টারভিউতে তিনি জানালেন যে, ভালোবাসার দিক থেকে তিনি অনেক পিছিয়ে রয়েছেন এবং তিনি জীবনে ভালোবাসা পাননি, সেই সঙ্গে তিনি নিজের লাভ স্টোরি নিয়েও জানালেন  যে, তিনি ও কাউকে ভালোবেসে ছিলেন কিন্তু তার ভালোবাসা বিয়ে পর্যন্ত পৌঁছানোর আগেই তাকে হাতছাড়া হতে হয়েছে, এমনিভাবেই তিনি চার বার ভালো বেসেছিলেন।অবিবাহিত থাকা তার জিবনেটির পথ রূপে সামনে এলো।আজ তিনি যে উচ্চতায় রয়েছেন বিয়ে করে নিলে হইতো তিনি আজ এই স্থানে পৌঁছাতে  পারতেন না।

তার বক্তব্য, যদি কেউ আমাকে জিজ্ঞেস করে যে,আমি কোনদিন  কাউকে ভালোবেসেছি? তাহলে আমি বলব যে ,আমি বিয়ের জন্য চার বার ভেবেছিলাম! কিন্তু প্রতিবারই কোননা কোন ভয়ে পিছু হেঁটে ছিলাম। রতন টাটা নিজের সেই সময়ের কথা বললেন যখন তিনি প্রথম ভালোবেসেছিলাম, তিনি বললেন যখন আমি আমেরিকায় কাজ করতাম সেই সময় আমি ভালোবাসা নিয়ে গম্ভির ছিলাম। আর এজন্য তাকে বিয়ে করতে পারলাম না , কারণ আমি পুনরায় ভারত ফিরে এসেছিলাম আর আমার  প্রেমিকা  সে ভারত আসতে চাইছিলনা। আর সে সময় ভারত এবং চীনের মধ্যে যুদ্ধ চলছিল।শেষ পর্যন্ত তার প্রেমিকা আমেরিকারই একটি যুবকের ঘটনার সাথে বিয়ে করে নিয়েছিল ।