২ হাজার বছরের পুরোনো কঙ্কালের খুলিতে বসানো রয়েছে ধাতব পাত, বিজ্ঞানীরাও অবাক

পৃথিবীর ইতিহাস অথবা মানব সভ্যতার ইতিহাস জানলে কত যে রহস্যের উদ্ঘাটন করা যায়, তা আমাদের কাছে অজানা। সম্প্রতি এমনই একটি রহস্যের সন্ধান পেয়েছেন পুরাতত্ত্ব বিজ্ঞানীরা। এবার আরো একবার তেমনি একটি রহস্যের সন্ধান পেলেন বিজ্ঞানীরা। ২০০০ আগের পুরনো এক যোদ্ধার মাথার খুলি খুঁজে পাওয়া গেছে। গত বছর এই খুলির সন্ধান পেয়েছেন পুরাতত্ত্ববিদেরা। খুলি দেখেই চমকে যান তাঁরা।

কিন্তু কেন? এই খুলিতে খুব যত্ন সহকারে ধাতুর পাত বসানো রয়েছে। বিজ্ঞানীদের ধারণা, কঙ্কালটি পেরুভিয়ান কোন এক যোদ্ধার। মাথায় আঘাত পেয়েছিলেন ওই যোদ্ধা খুব সম্ভবত। তারপর হয়তো তার চিকিৎসা করানো হয়। অস্ত্রোপচার করে মাথায় এই পাত বসানো হয়েছে বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের।


এতদিন এই বিশেষ খুলিটি জনসমক্ষে আনা হয়নি। কিন্তু এবার এটিকে রাখা হয়েছে ওকলাহোমার মিউজিয়াম অফ অস্ট্রলজিতে। জনসাধারণের সমক্ষে আনার পর আরও বেশি উৎসাহের সৃষ্টি হয়েছে সকলের মধ্যে। মিউজিয়ামের অফিশিয়াল ফেসবুক পেজ থেকে সম্প্রতি এই খুলির ছবি পোস্ট করা হয়েছে। ক্যাপশনে লেখা রয়েছে, এটি মানুষেরই খুলি।

কিন্তু আজ থেকে ২০০০ বছর আগে কিভাবে মানুষের মাথার খুলিতে এইভাবে ধাতুর পাত বসানো হলো তা নিয়ে পর্যালোচনা করছেন বিজ্ঞানীরা। কেউ কেউ দাবি করেছেন, হয়তো ধাতু গলিয়ে মাথার খুলির ভাঙা অংশে ঢেলে দেওয়া হয়েছিল। আবার কোনো কোনো বিজ্ঞানীদের মতে, অস্ত্রোপচারের মাধ্যমে মাথার ভিতর ক্ষত সারানোর জন্য এই পাত ব্যবহার করা হয়েছে।

এই খুলির সন্ধান পাওয়ার পরে বিজ্ঞানীরা মনে করছেন, তখনকার শল্যচিকিৎসা অনেকটাই উন্নত ছিল। যুদ্ধক্ষেত্রে দক্ষ চিকিৎসকরা উপস্থিত থাকবেন বলেও মনে করা হচ্ছে। তবে এই ধাতুর পাতে কোন ধাতু ব্যবহার করা হয়েছে তা এখনো বোঝা যায়নি।