নিরাপত্তাজনিত কারণে এবার চীনা কম্পানি Huawei- কে 5G পরিকাঠামোর থেকে সরালো ব্রিটেন…

গোটা বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাস মহামারী আকার ধারণ করার পর থেকে চীনের ওপর এক প্রকার ক্ষুব্ধ রয়েছে বিশ্বের অন্যান্য দেশ গুলি।শুধু তাই নয় করোনা মহামারী আকার ধারণ করার পর থেকে আমেরিকা সহ বিশ্বের অন্যান্য দেশ গুলি চীনের বিরুদ্ধে একাধিক সুর ছড়িয়েছে। যেখানে বিশ্বের সকল দেশগুলি একপ্রকার চীনকে বয়কট করার ডাক দিয়েছে। আর তাছাড়া যখন গালওয়ান উপত্যকাতে ভারত চীনের মধ্যে সংঘর্ষ বাধে তার পর থেকে ভারতেও চীনা পণ্য বয়কট করার ডাক উঠেছে।

অন্যদিকে ভারত সরকার এবার চীনকে শায়েস্তা করার পথে উঠে পড়ে লেগেছে যার দরুন ভারত সরকারের তরফ থেকে ইতিমধ্যেই চীনকে ডিজিটাল দিক থেকে শায়েস্তা করতে 59 টি চীনা অ্যাপ্লিকেশন বর্তমানে ভারতে ব্যান করে দেওয়া হয়েছে। শুধু ভারত সরকারের নয় ভারত সরকারের পাশাপাশি একাধিক নামিদামি সংস্থার তরফ থেকে এই মুহূর্তে চীনা মাল ক্রয় করার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি করা হয়েছে। আর আপনাদের সুবিধার্থে বলে রাখি এই চীনা অ্যাপ গুলি ব্যান হয়ে যাওয়ার কারনে চীনের প্রতিদিন প্রায় 100 কোটি টাকার ক্ষতি হচ্ছে।

তবে এবার ভারতের পর চীন কে আবারো বড়সড় ধাক্কা দিতে চলেছে ব্রিটেন।কারণ ব্রিটেনের তরফ থেকে ইতিমধ্যে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে তাদের দেশের মোবাইল সংস্থা ফাইভ-জি পরিকাঠামো তৈরি করার দায়িত্ব থাকা চীনা সংস্থা Wuawei কে ইতিমধ্যে তারা সরিয়ে দিতে চলেছে। সম্ভবত এই বছরই তা ঘোষণা করতে পারেন ব্রিটেনের প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন। এমন খবর তাদের দেশের সংবাদ মাধ্যমের তরফ থেকে বেরিয়ে এসেছে। এই খবরটি বেরিয়ে এসেছে ব্রিটিশ সংবাদপত্র সানডে টেলিগ্রাফের মাধ্যমে, যেখানে সম্প্রতি হুয়াইকে নিয়ে একটি রিপোর্ট পেশ করেছেন ব্রিটিশ গোয়েন্দা সংস্থা GCHQ।

যেখানে তাদের তরফে বলা হয়েছে সম্প্রতি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিষিদ্ধ হয়েছে Wuawei,ফলে ওই সংস্থা সন্দেহজনক ও নিরাপত্তার জন্য উপযুক্ত নয় এমন কী এই প্রযুক্তি ব্রিটেনের ফাইভ-জি নেটওয়ার্ক বসাতে পারে যার ফলে গোটা দেশ টেলিফোন ব্যবস্থার নিরাপত্তা হীনতায় ভুগবে। অন্যদিকে দেশের মানুষের নিরাপত্তার কথা মাথায় রেখে ইতিমধ্যে ভারতে 5G টেকনোলজির পরিকাঠামো তৈরি করতে Wuawei এর যন্ত্রপাতি ব্যবহার বন্ধ করার প্রস্তাব এসেছে সরকারের তরফ থেকে তবে শুধু তাই নয় এক্ষেত্রে যেসব যন্ত্রপাতি আগে বসানো হয়েছিল সেগুলিকেও খুলে ফেলার তোড়- জোড় শুরু করা হয়েছে।

 

Related Articles

Back to top button