দেশনতুন খবর

নতুন বছরের শুরুতে হতে চলেছে পাঁচটি নিয়ম জারি! যা জানা দরকার প্রত্যেকটি নাগরিকেরই।

ইতিমধ্যে কেন্দ্রীয় সরকার পক্ষ থেকে এক নয় ,দুই নয় ,তিন নয় , বেরিয়ে এসেছে পাঁচটি নতুন আপডেট। জারি হয়েছে নতুন নতুন নিয়ম যেগুলো আপনার জানা অত্যন্ত আবশ্যক। আজকের আমাদের আলোচ্য বিষয় থাকবে এই নতুন নিয়ম গুলি কে নিয়ে।
(১) বর্তমানে যেসব গ্যাস সিলিন্ডার গুলি রয়েছে তাতে প্রচুর দূর্ঘটনা হয়ে থাকে এবং এছাড়াও নানা রকম গ্যাস লিক দেখা যায়। তারই পরিপ্রেক্ষিতে কেন্দ্রীয় সরকার আনতে চলেছে এক নতুন ধরনের গ্যাস সিলিন্ডার। যার নাম দেওয়া হয়েছে এন্টি ব্লাস্ট সিলিন্ডার। অর্থাৎ যার দ্বারা কোন ব্লাস্ট হবে না, নানারকম গ্যাস দুর্ঘটনা থেকে সুরক্ষিত থাকবে সাধারণ মানুষ।

(২) যারা বাইক চালান তাদের দৈনন্দিন জীবনে হেলমেট অবশ্যই প্রয়োজনীয়। আর হেলমেট না পরে থাকলে ট্রাফিক পুলিশের সম্মুখীন হতে হয় এবং পকেট থেকে বেরিয়ে যায় অনেক টাকা। কিন্তু এবার আপনার হেলমেট থাকলেও আপনি পড়তে পারেন ট্রাফিক পুলিশের খপ্পরে। ১লা জানুয়ারি থেকে আপনার পুরনো হেলমেট আর চলবে না। আপনার ব্যবহৃত হেলমেটটি আইএসআই (ISI) সার্টিফাইড হতে হবে। হেলমেট এর সর্বাধিক ওজন ১.২ কিলোগ্রাম হতে হবে। বর্তমানে হেলমেট গুলির ওজন হল ১.৫ কিলোগ্রাম। বিনা আইএসআই মার্ক দেওয়া হেলমেট বিক্রি বা ব্যবহার করলে তাদের বিরুদ্ধে মামলা করতে পারে সরকার। কোন আরোহী যদি ইন্ডাস্ট্রিয়াল হেলমেট পরে তাহলেও তার বিরুদ্ধে মামলা করা হবে। অর্থাৎ আইএসআই লোগো ছাড়া আপনার হেলমেটটি আপনি ব্যবহৃত করতে পারবেন না। আর যদি করে থাকেন তাহলে সরকারকে দিতে হতে পারে বড়োসড়ো জরিমানা।

(৩) আপনি যদি অনলাইন এ শপিং করে থাকেন তাহলে আপনার জন্য খুব দুঃখের খবর, কোর্ট থেকে অর্ডার জারি করা হয়েছে , যে অনলাইনে যেসব প্রতিষ্ঠানগুলি খুব বড় মাপের ছাড় দিয়ে থাকে সেগুলি দেওয়া বন্ধ করতে হবে। অর্থাৎ বন্ধুরা আমাজন , ফ্লিপকার্ট অথবা পেটিএম কোন প্রতিষ্ঠান আপনাকে আর বড়ো সেল দিতে পারবে না।

(৪) ২০১৯ থেকে শুরু হতে চলেছে প্রিপেইড মিটার। অর্থাৎ মোবাইল এর মত আপনি যত টাকা রিচার্জ করেন তত টাকার কথা বলতে পান। ঠিক তেমনই এবার এই সুবিধা শুরু হতে চলেছে ইলেকট্রিক বিভাগে। আপনি যত টাকার ইলেকট্রিকের রিচার্জ করবেন ঠিক ততটাই বাড়িতে ইলেকট্রিক ব্যাবহার করতে পারবেন।

(৫) ২০১৯ এর প্রথমেই বন্ধ হতে চলেছে দেশের ৫০ শতাংশ এটিএম কার্ড। RBI (রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া) পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, যেসব এটিএম কার্ড গুলি পুরনো এবং যেগুলিতে কোনো চিপ লাগানো নেই সেই সব এটিএম কার্ড গুলিকে বন্ধ করা হবে। মূলত সংস্থার এই পদক্ষেপ এটিএম-এ হওয়া চুরিগুলোকে বন্ধ করার জন্যই নেওয়া হয়েছে ।

আরো এরকম নতুন নতুন খবরের আপডেট পেতে চোখ রাখুন আমাদের ওয়েব পোর্টালটিতে।

Related Articles

Back to top button