নতুন খবররাজনৈতিকরাজ্য

ধর্নায় যোগ দেওয়া পাঁচ আইপিএস অফিসারের বিরুদ্ধে কড়া পদক্ষেপ নিতে চলেছে কেন্দ্র, কেড়ে নেওয়া হতে পারে তাদের….

রাজ্য পুলিশের ডিজি সহ আরও পাঁচ আইপিএস আধিকারিকদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে চলেছে কেন্দ্রীয় সরকার। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে এমনটাই খবর পাওয়া গেছে। এই অফিসারদের শাস্তি মূলক ব্যবস্থা হিসেবে তাদের যাবতীয় পুরস্কার এবং মেডেল কেড়ে নেওয়া হতে পারে। ওই পাঁচ আধিকারিক কে রবিবার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সঙ্গে মেট্রো চ্যানেলে ধর্না করতে দেখা গিয়েছিল বলে অভিযোগ স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের। ডিজি বীরেন্দ্র, এডিজি আইনশৃঙ্খলা অনুজ শর্মা, মুখ্যমন্ত্রীর নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা বিনীত গোয়েল, কলকাতা পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার সুপ্রতীম সরকার এবং বিধাননগরে কমিশনার জ্ঞানবন্ত সিংহের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে জানানো হয়েছে।

 

স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে খবর, কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা এবং রাজ্যপাল কেশরীনাথ ত্রিপাঠী যে মন্ত্রকের কাছে যে রিপোর্ট পাঠিয়েছেন সেখানে স্পষ্ট ভাবে জানানো হয়, ওই রবিবার রাতে রাজীব কুমারের সঙ্গে মেট্রো চ্যানেলে ওই পাঁচ পুলিশ কর্তা কে মমতার পাশে চেয়ারে বসতে দেখা যায়। গত মঙ্গলবার এ স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের তরফ থেকে রাজ্যের মুখ্যসচিবকে একটা চিঠি পাঠানো হয়। সেই চিঠিতে কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারের বিরুদ্ধে শৃঙ্খলা ভঙ্গ এবং সার্ভিস কন্ডাক্ট ভাঙার অভিযোগে তার বিরুদ্ধে করা ব্যবস্থা নিতে অনুরোধ করা হয়। এই সার্ভিস রুলের নির্দেশিকা উল্লেখ করে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের যুক্তি ছিল, একজন পুলিশ কর্তা কখনোই কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচিতে যোগদান করতে পারেন না। আর কোনো রাজনৈতিক কর্মসূচি দিয়ে যদি যোগদান করেন তাহলে সেটা সার্ভিস রুল কে ভঙ্গ করা হচ্ছে। উল্টো দিকে কেন্দ্রের এই চিঠির প্রসঙ্গে কড়া ব্যবস্থা নিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

 

 

ওই দিন সন্ধ্যায় ধর্না র মঞ্চ থেকে তিনি কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিংয়ের বিরুদ্ধে কড়া আক্রমণ করে বলেন, পুলিশের পাশেই তিনি থাকবেন। তখন মুখ্যমন্ত্রী জানতেন না আরো ওই পাঁচ পুলিশ কর্তাদের বিরুদ্ধেও ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। ওই পাঁচ পুলিশ কর্তা বিরুদ্ধে রাজ্য কোন পদক্ষেপ নেবে না ধরে নিয়ে ওই রিপোর্টের ভিত্তিতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক ওই পাঁচজনের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নেওয়ার প্রক্রিয়া ইতিমধ্যে শুরু করে দিয়েছে বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে খবর পাওয়া যায়। জানা যায় ওই 5 জন পুলিশ কর্তা তাদের চাকরি জীবনে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে যে সমস্ত পদক পেয়েছেন প্রাথমিকভাবে সেগুলি কেড়ে নেওয়া হবে। ওই 5 জন পুলিশ কর্তাদের মধ্যে কয়েকজন রাষ্ট্রপতি পদক পেয়েছেন।

 

 

সেই পদক গুলিও কেড়ে নেওয়া হবে বলে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে জানা যায়। এছাড়াও কেন্দ্রীয় সরকারের কোন সংগঠনের কাজ করার জন্য ‘ এমপ্যানেল’ থেকে তাদের নাম বাতিল করে দেওয়া হবে বলে জানা যায়। এটা হলে ভবিষ্যতে তারা রাজ্য ছাড়া বাইরে কোন পদে কাজ করার সুযোগ হারাবেন।স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে জানা যায় যে, এই সিদ্ধান্তটি তারা চূড়ান্ত করে ফেলেছে। কয়েকদিনের মধ্যেই রাজ্যকে তারা চিঠি পাঠাবে। তবে নবান্ন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের এই সিদ্ধান্তটি নিয়ে কিছু বলেনি। নবান্ন সূত্রে খবর স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের চিঠি পেলে তবেই রাজ্য সরকার সিদ্ধান্ত নেবে।

Related Articles

Back to top button