অবশেষে ধোনির সঙ্গে অবসর নেওয়ার গোপন কাহিনী তুলে ধরলেন সুরেশ রায়না, জানালেন…

15 ই আগস্ট স্বাধীনতা দিবসের দিনটিকে বেছে নিলেন ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি অবসর নেওয়ার জন্য। এদিন তিনি তার ইনস্টাগ্রাম অ্যাকাউন্ট থেকে 4 মিনিট 7 সেকেন্ডের একটি ভিডিও পোস্ট করে লেখেন যে, তাকে ওই 7.29 মিনিট থেকে যেন অবসরপ্রাপ্ত ক্রিকেটার হিসেবে মনে করা হোক। শুধুমাত্র মহেন্দ্র সিং ধোনি নয় এই দিনটিকে অবসর নেওয়ার জন্য বেছে নিয়েছেন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান সুরেশ রায়না।

 

ভারতীয় দলের হয়ে দুজনেই একসাথে তো খেলেছেন এছাড়াও আইপিএলে প্রত্যেক বছরই চেন্নাই সুপার কিংসের হয়ে একই দলে খেলেছেন। উভয় ড্রেসিংরুমে অনেকটা সময় কাটিয়েছেন। এর ফলে তাদের মধ্যে সম্পর্ক একটি আলাদা রকম ছিল। কিন্তু মহেন্দ্র সিং ধোনি এবং সুরেশ রায়নার একই দিনে অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তুলেছেন। কেন তিনি এই দিনটিকে বেছে নিলে অবসর নেওয়ার জন্য তা খোদ জানালেন সুরেশ রায়না। শুধু তাই নয় একথাও জানিয়েছেন যে এত বড় একটা সিদ্ধান্ত নেওয়ার পরে কীভাবে ভেঙে পড়েছিলেন তারা।

তিনি জানিয়েছেন অধিনায়ক এর পথে হেঁটেই তিনি এ সিদ্ধান্ত নিয়েছেন। এর পাশাপাশি এই প্রাক্তন বাঁহাতি ব্যাটসম্যান আগেই জানতেন যে মহেন্দ্র সিং ধোনি চেন্নাই সুপার কিংস দলে যোগ দেওয়ার পরেই আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নেবেন তিনি। আর তাই তিনিও আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানানোর জন্য তৈরি হয়ে যান। রায়না জানান, “14 তারিখে চার্টার্ড ফ্লাইটে করে আমি, পীযূষ চাওলা, কারান শর্মা এবং দীপক চাহার রাঁচি যায়। এবং সেখান থেকে মাহি ভাই এবং মনু সিংকে তুলি।

আমি জানতাম রাঁচি পৌঁছাই মাহি ভাই এই ঘোষণা করবে। তাই আমি ওই সিদ্ধান্ত নেওয়ার জন্য একেবারে তৈরি ছিলাম।” আপনাদের জানিয়ে দিই, মহেন্দ্র সিং ধোনি যখন টেস্ট থেকে অবসর নিয়েছিলেন তখনও তার পাশে ছিলেন রায়না। আর এবার যখন মাহি আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিলেন তখনও রায়না কে পাশে পেয়েছেন তিনি। রায়না আরো জানান যে, নিজেদেরকে অবসর ঘোষণা করার পরই দুজন দুজনকে ধরে কেঁদেছিলেন তারা। অবশ্য এরপর রাতভর ধরে পার্টিও করেন তারা।

কিন্তু এখনো প্রশ্ন হচ্ছে যে 15 আগস্টকে কেন অবসরের দিন হিসেবে বেছে নিলেন তারা। এর প্রশ্নের উত্তরে রায়না জানান যে, মাহি ভাই এর জার্সি নম্বর 7 আর আমার 3। আর এই দুটি নম্বরকে পাশাপাশি বসালে 73 হচ্ছে। আর গত শনিবার অর্থাৎ 15 ই আগস্ট ভারতের 73 তম স্বাধীনতা দিবস ছিল। সেই দিকটি ভেবেই ঐদিন অবসর নেওয়ার সিদ্ধান্ত নেন তারা। কিন্তু যাইহোক বর্তমানে এই দুই তারকারা ব্যস্ত আইপিএল নিয়ে। আর ক্রিকেট প্রেমীরা অপেক্ষা করে আছে সেই 19 সেপ্টেম্বর তাদেরকে আবার ক্রিকেটের মাঠে দেখা যাবে বলে।