অবশেষে রাম মন্দির নির্মাণ নিয়ে মুখ খুললেন বাবা রামদেব বললেন, আইন ছাড়াই নির্মাণ করা যেতে পারে রাম মন্দির।

রাম মন্দির নির্মাণের দাবি লোকসভার আগে ক্রমান্বয়ে জোরেশোরে চলছে। হিন্দু বাদী সংগঠন গুলির পক্ষ থেকে রাম মন্দির তৈরি আইন-শৃঙ্খলা সম্বন্ধে অনেক দাবি উঠে আসছে। তাহলে কি করবে আন্দোলনকারীরা? আইন না হলে কি করে হবে?শেষমেষ এই উত্তরটি দিয়ে বসলেন সর্ব পরিচিত গুরু রামদেব। তিনি এও জানালেন যদি রাম মন্দির তৈরির আইন না তৈরি করা হয়, তাহলে অন্য পথে হাঁটতে হবে রামভক্ত কারীদের । বেছে নিতে হবে তাদের বিকল্প পথ, যেটি হবে রাম মন্দির তৈরি করার রাস্তা।তিনি এটিও বুঝিয়ে দিয়েছেন, সে বিকল্প পথে কিন্তু অন্যদের জন্য সুবিধাজনক হবে না।

রাম মন্দির নিয়ে বিতর্ক সমস্যা অনেক দিন থেকে আদালতে ঝুলছে, জমি ছাড়া রয়েছে অনেক সমস্যা। তিনি রাম মন্দির তৈরির সম্বন্ধে মন্তব্য দিয়েছেন,” মানুষ এবার ধৈর্য হারিয়ে ফেলছে, সরকারকে খুব দ্রুত নিয়ে আসতে হবে কোন নির্দিষ্ট আইন । না হলে মানুষ নিজের ধৈর্য হারিয়ে নিজেদের উদ্যোগে শুরু করে দেবে রাম মন্দির নির্মাণের কাজ।মানুষ আইন নিজের হাতে নিয়ে নিলে তখন আর প্রতিকূল পরিবেশ সৃষ্টি হবে না । যদি মানুষ মন্দির তৈরি করার কাজ নিজ হাতে নিয়ে নেয় হতে পারে বড় সাম্প্রদায়িক বিঘ্নতা “।

বাবা রামদেবের বিশ্বাস শুধু হিন্দুই নয় , সকল সাম্প্রদায়িক দল গুলি রাম মন্দির নির্মাণের কাজে একসাথে এগিয়ে আসবেন। তার মন্তব্য, “রাম মন্দির নির্মাণের কাজে আশা করি কেউ বিরোধিতা করবে না। খ্রীষ্টান, হিন্দু ,মুসলিম ,শিখ সম্প্রদায়ের সবাই এগিয়ে আসবে রাম মন্দির নির্মাণ কার্যে”।এক বৈঠকে সংসদ ‘ রোবিন্দর কুশওয়াহা ‘ জানান, গত ১১ই ডিসেম্বর শীতকালীন লোকসভার অধিবেশনে এই রাম মন্দির নির্মাণের বিল পাস করা হবে”। যদিও রাজ্যসভায় সংখ্যাগরিষ্ঠ না থাকায় নিশ্চিত এখন থেকে কিছু বলা যাচ্ছে না।