35 টা জঙ্গির লাশ দেখেছি, পাক সেনা মোবাইল কেড়ে নিয়েছিল সবার থেকেঃ প্রত্যক্ষদর্শী

পাকিস্তানে ভারতের এয়ার স্ট্রাইকের জায়গায় উপস্থিত প্রত্যক্ষদর্শী পাকিস্তানের মুখোশ খুলে দিল। 26 শে ফেব্রুয়ারি হওয়া পাকিস্থানে ভারতীয় বায়ু সেনা দ্বারা হওয়া এয়ার স্ট্রাইকের কয়েক ঘন্টা পর উনি দেখেছেন যে ঘটনাস্থলে একটি অ্যাম্বুলেন্স এর মাধ্যমে 35 টি লাশ কে বাইরে পাঠানো হয়েছে। এমনকি এই প্রত্যক্ষদর্শীর মতে জানতে পারা যায় মৃতদের মধ্যে 12 জন এমন ছিল যারা অস্থায়ী ঝুপড়িতে থাকতো আর মৃত ব্যক্তিদের মধ্যে এমন অনেক জন ছিল যারা পাকিস্তানি সেনার হয়ে আগে কাজও করেছে। এই প্রত্যক্ষদর্শীর মতে জানতে পারা যায় বোমাবাজির একটু পরে সেখানে স্থানীয় অধিকারীকরা পৌঁছান।

কিন্তু পাকিস্তানি সেনা আগের থেকেই সেই এলাকা সিল করে দিয়েছিল এমনকি সেখানে পুলিশ কেউ যাওয়ার জন্য অনুমতি দেওয়া হয়নি। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা যায় সেনা সেখানে উপস্থিত মেডিকেল কর্মচারীদের কাছ থেকে মোবাইল ফোন ও কেড়ে নিয়েছিলেন। আরো জানতে পারা যায় এক প্রাপ্তন পাকিস্তানি আইএসআই অধিকারীক যাকে স্থানীয়রা কর্নেল সেলিম বলে জানতো সেও এই বোমাবাজিতে নাকি মারা গেছে। অন্যদিকে আরেক অধিকারীদের নাম কর্নেল জার জাকির গুরুতর আহত হয়েছে এই এয়ার স্ট্রাইকে। পেশাওয়ারের জৈশ-এ- মহম্মদ এর ট্রেইনার মুফতি মৈন আর বিস্ফোটক উপকরণ নির্মাতা বিশেষজ্ঞ উসমান গনী ও মারা গেছে। এই প্রত্যক্ষদর্শীদের কাছ থেকে জানতে পারা যায় ফিদাইন টেনিং সম্পূর্ণ করা জৈশ এর জঙ্গিরা অস্থায়ী ঝুপড়িতে থাকতো। তবে ওরা এবার ভারতের বায়ুসেনা দ্বারা এয়ার স্ট্রাইক এর পরেই মারা গেছে।

Related Articles

Leave a Reply

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.

Close