ঈশা আম্বানির বিয়েতে মেগাস্টার রাজনিকান্ত যা করলেন, তা দেখে প্রত্যেকটি ভারতীয় বলবেন ..

‌কয়েকদিন আগেই সম্প্রতি ব্যবসায়ী মুকেশ আম্বানির কন্যা ঈশা আম্বানি বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়েছে, দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তম ব্যবসায়ী অজয় পিরামিলের ছেলে আনন্দ পিরামিলের সাথে। এবার বলা হচ্ছে যে এই বিবাহ দেশের সবচেয়ে ব্যয়বহুল বিবাহ গুলির মধ্যে অন্যতম ছিল। এই বিবাহের জন্য ব্যয় করা হয়েছিল কোটি কোটি টাকা। আর এই বিয়ের আরো একটি বৈশিষ্ট্য হলো এই বিবাহতে আশা অতিথিরাগনরা। শুধু এই দেশেরই নয় বিদেশ থেকে এসেছিল অনেক সেলিব্রিটিরা ও মুকেশ আম্বানির কন্যার বিয়েতে ।এখানে উপস্থিত ছিলেন বলিউডের নামকরা সেলিব্রিটি থেকে শুরু করে রাজনীতি মহলে বড় বড় নেতারা, সাথে ছিলেন খেলার জগতের বিভিন্ন তারকারাও।

আরো আপনাদের বলে রাখি যে এই বড় বড় সেলিব্রিটি দের মধ্যে একজন মেগাস্টার ও এসেছিলেন মুকেশ আম্বানির কন্যাকে আশীর্বাদ করার জন্য ,যার নাম গোটা পৃথিবীতে এখন চর্চিত।তবে অবাক করার বিষয় এটা যে যার সিনেমা দেশে বিদেশে কোটি কোটি টাকা আয় করে তিনি দেশের সবচেয়ে ধনী ব্যক্তির বিয়েতে সাধারণ চপ্পল পরে ওরে এলেন যা দেখে মুকেশ আম্বানি ও দাঁড়িয়ে পড়লেন তাকে সম্মান করার জন্য। ইনি আর কেউ না আমাদের সবার প্রিয় সুপারস্টার রজনীকান্ত।আর এটা বলা বাহুল্য যে দেশে কেউ মুকেশ আম্বানিকে জানুক কিংবা নাই জানুক রাজনী কান্ত কে চিনবে না এরকম মানুষ হয়তো পৃথিবীতে নেই বললেই চলে।সাউথের সিনেমা কিংবা বলিউডের ই সিনেমা হোক না কেন যে সিনেমাতে ইনি অভিনয় করেছেন সেই সিনেমায় প্রায় সুপার হিট হয়েছে।

এরকমও বলা হয় যে অনেক অভিনেতাদের সিনেমা হিট হওয়ার পর যে টাকা কামায় সে টাকা রজনীকান্তের সিনেমা বেরোনোর আগেই কামিয়ে নেয়।এই সময়ে রজনীকান্তের মুভি রোবট ২.০ একের পর এক রেকর্ড ভেঙে চলেছে, গড়ে চলেছে নতুন রেকর্ড বক্স অফিসে। ঈশা আম্বানির বিয়েতে রাজনীকান্ত বিনা মেকআপে সাদা কুর্তা ও চপ্পল পায়ে হাজির হন এবং সেখানে থাকার সমস্ত অতিথিগণ তার দিকে তাকিয়ে থাকে ।তাই এটা বলা বাহুল্য যে আমাদের ফেবারেট মেগাস্টার রজনীকান্ত যে সফলতায় পৌঁছেছেন তা তার কঠোর পরিশ্রমের ফল।তবে তিনি এতো সফলতার চূড়ায় থাকার পরও কোন প্রকার অহংকার না রেখে সাধারণ মানুষের পারায় জীবন যাপন করতে পছন্দ করেন।