কখনো চলন্ত সেতু দেখেছেন? এবার ভারতের মধ্যে তৈরি হতে চলেছে চলন্ত সেতু!

মোদির সরকার যখন থেকে ক্ষমতায় এসেছে তখন থেকে কিছু না কিছু ওয়ার্ল্ড রেকর্ড গড়েই চলেছে, কিছুদিন আগেই বল্লভ ভাই পাটেলের মূর্তি তৈরি করে পৃথিবীর সবথেকে উঁচু মূর্তি নির্মাণের খাতায় ভারতের নাম উঠিয়েছেন। শুধু তাই নয় বিশ্বের সবথেকে উঁচু রেল ব্রিজ এবার ভারতে অবস্থিত হবে যার উচ্চতা আইফেল টাওয়ার থেকেও উঁচু। এবার আরেকটি নতুন সেতুর নির্মাণ করতে চলেছে মোদী সরকার যার নাম হল, ” পমবন সেতু ” । আপনারা জানলে অবাক হবেন এই পমবন সেতুটি হবে চলমান । আপনারা ভাববেন চলমান আবার কেমন সেতু ?

কিন্তু ভারতীয় ইঞ্জিনিয়াররা এই সেতুর ডিজাইন ও তৈরি করে ফেলেছেন ভারতের আধুনিক টেকনোলজি এর দিনদিন উন্নতি ঘটে চলেছে। আর এই টেকনোলজির জন্যই ভারত দিন দিন আরো আকাশে উড়ে চলেছে এবং এই আকাশে উড়ার আরেকটি পালক হতে চলল এই পমবন সেতু। এই রেল সেতুটি কেমন হবে তার ভিডিও ফেসবুকে পোস্ট করেছেন আমাদের মাননীয় রেলমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল । এছাড়াও তিনি এও জানিয়েছেন, চলমান ব্রিজ দেখেছেন কখনো ? রামেশ্বরমকে ভারতের মূলভূখণ্ডের সাথে যুক্ত করার জন্য এই ব্রিজ নির্মাণ করা হতে চলেছে। শুধু তাই নয় এই ব্রিজে ব্যবহৃত করা হবে একটি উলম্ব লিফ্ট সিস্টেম। এর দরুন ভারী ও বড় জাহাজ গুলি সহজেই ব্রিজের এপার থেকে ওপার যাতায়াত করতে পারবে। আপনাদের জানিয়ে রাখি , বর্তমানে ভারত রেল সরকার পমবন সেতুর জায়গায় আরেকটি নতুন সেতু নির্মাণ করতে চলেছে।


মাননীয় রেলমন্ত্রী পিযুষ গোয়াল ব্রিজটির ডিজাইনের ভিডিওটি ফেসবুকে ছাড়ার পর থেকে এই ব্রিজটির সম্বন্ধে দেশবাসী জানার জন্য তাদের মধ্যে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে । এছাড়াও জানা গিয়েছে এই ব্রীজটি প্রায় দু কিলোমিটার লম্বা হবে। পমবন সেতুর তৈরির জন্য মোট ২৩০ কোটি টাকা খরচা হবে এবং এই ব্রিজের মধ্যে ৬৩ মিটার উল্লম্ব লিফট তৈরি করা হবে। এই ব্রিজটি রেল যাওয়ার সময় নিচে থাকবে এবং জাহাজ যাতায়াত করার সময় এটি উপরে উঠে যাবে। ইতিমধ্যেই রেল মন্ত্রক এই ব্রিজটির তৈরীর জন্য ছাড়পত্র দিয়ে দিয়েছে এবং এই ব্রিজটির তৈরি জন্য প্রায় চার বছর সময় লাগবে ।
দেখুন সেই ভিডিওটি:—-