ট্রেন ছেড়ে দিলেও এবার থেকে মিলবে সংরক্ষিত টিকিট..বড় সিদ্ধান্ত পূর্ব রেলের..

ট্রেনের নিয়ম কানুন আমূল পরিবর্তন করল পূর্ব রেল, এতদিন ধরে যাত্রীদের যে অসুবিধা গুলি হতো এবার তারই সরলীকরণ করে ফেললেন তাঁরা। তার জন্য ব্যবহৃত হয়েছে অত্যাধুনিক প্রযুক্তিগত মেশিন, যার নাম হ্যান্ড হেল্ড টার্মিনাল বা সংক্ষেপে এইচ এইচ টি।এবার থেকে আর ট্রাভেলিং টিকিট এক্সামিনারদের ঘুরে ঘুরে টিকিট চেক করতে হবে না। এমনকি চার্ট নিয়েও কামরায় কামরায় ঘুরে বেড়াতে হবে না, শুধুমাত্র এই মেশিনটি থাকলেই কেল্লাফতে। এই মেশিনগুলি দিয়েই এবার থেকে তাঁরা টিকিট পরীক্ষা করবেন এই মেশিনে।

শুধুমাত্র দরকার পড়বে পি এন আর নম্বর এবং সেই নাম্বার দিলেই ওই কামরার যাত্রীদের সমস্ত রকম পুঙ্খানুপু টিকিট সংক্রান্ত তথ্য টিটিদের কাছে পৌঁছে যাবে মুহূর্তে। এখানেই শেষ নয়, এই মেশিনের রয়েছে আরও একটি গুনাগুন তা হলো বাতিল হয়ে যাওয়া টিকিটের সিট পুনরায় বুকিং করাও সম্ভব হবে, এতদিন ধরে এই সিট গুলি নিয়ে দুর্নীতির অভিযোগ উঠেছে বারবার এবার সেখানেও স্বচ্ছতা আসবে বলে মনে করা হচ্ছে।

কারণ সিট রিজার্ভেশন করেও যদি সেই ব্যক্তি তাঁর সিটে অনুপস্থিত থাকেন সে খবরও এই মেশিনের মাধ্যমে সরাসরি গিয়ে পৌঁছবে দিল্লির পূর্ব রেলের সদর দপ্তরে অথবা ফেয়ারলি প্লেসে। বোঝাই যাচ্ছে এই মেশিনের মাধ্যমে সরাসরি যুক্ত থাকবে রেল দপ্তর। ইতিমধ্যেই অগ্নিবীণা ও ইন্টারসিটি এক্সপ্রেস এ চালু হয়েছে এই যন্ত্র এ কথা জানিয়েছেন স্বয়ং আসানসোল ডিভিশন রেল সিনিয়র ডিভিশনাল কমার্শিয়াল সুপারিনটেনডেন্ট শান্তনু বন্দ্যোপাধ্যায়।

তাঁরা বলেন তাদের কাছে মোট ২৭ টি এ ধরনের যন্ত্র এসে উপস্থিত হয়েছিল, এর ফলে যাত্রীদের অনেকটাই সুবিধা হচ্ছে বলে মনে করা হচ্ছে। এতদিন ধরে স্টেশনে যা সম্ভব হতো না, তা এই মেশিনটি করে দিচ্ছে নিমেষে, এছাড়াও ট্রেনের কামরায় প্রতিনিয়ত পরিষ্কার রাখা, নিরাপত্তা সমস্ত বিষয়েই নজরে রেখেছে পূর্ব রেল। বলা চলে একপ্রকার নতুন দিশা দেখাতে চলেছে এই হ্যান্ড হেল্ড টার্মিনাল মেশিনটি।