একজন ভারতীয় হয়েও পাকিস্তানি এজেন্ট এর মতন কথা বলছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়, মন্তব্য বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা শর্মার।

‘নিজের রাজ্যের গণতন্ত্রের কোন ঠিক ঠিকানা নেই আর মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দেশের গণতন্ত্র বাঁচাতে আন্দোলন করছেন।’ এই বলে তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে কড়া আক্রমণ করলেন বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা শর্মা। নিজের বক্তব্যের স্বপক্ষে যুক্তি দিয়ে বলেন পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলা থেকে বাংলা ছবি ভবিষ্যতের ভূত মুক্তি বিতর্ক টেনে এনেছেন বিজেপির এই নেত্রী। পশ্চিমবঙ্গে গণতন্ত্র নেই এবং পশ্চিমবঙ্গে বিরোধীদের কণ্ঠরোধ করা হচ্ছে বলে বারবার অভিযোগ জানিয়েছে বিজেপি দলের একাংশ। শুধু বিজেপি নয় এই একই সুর দেখা গেছে বাম ও কংগ্রেসের মুখে। অন্যদিকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন কেন্দ্রে বিজেপির জামানায় কোনও গণতন্ত্র নেই।

 

 

 

 

 

 

 

 

তৃণমূল নেত্রী কে প্রায় সকল অবিজেপি দল সমর্থন জানিয়েছেন এই বক্তব্যের পিছনে। বিজেপির বিরুদ্ধে দিল্লির যন্তর মন্তরে বহু দল ধর্নাও দিয়েছে। গত সপ্তাহে বাংলা ফিল্ম ইন্ডাস্ট্রির অনীক দত্ত পরিচালিত ভবিষ্যতের ভূত নামে একটি ফিল্ম মুক্তি পেয়েছে। সেন্সর বোর্ডের ছাড়পত্র পেয়ে ছবি প্রদর্শন শুরু হলেও তা বহু প্রেক্ষাগৃহে বন্ধ করে দেওয়া হয়। বন্ধ করে দেওয়ার কারণ হিসেবে প্রেক্ষাগৃহগুলি পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, ‘ উপর মহলের নির্দেশ আছে’। গতবছর কলকাতা তে আন্তর্জাতিক চলচ্চিত্র উৎসবের সময় নন্দন চত্বরে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি ব্যবহার করা নিয়ে এই সিনেমার পরিচালক অনীক দত্ত প্রশ্ন তোলেন। সেই কারণেই উপর মহল থেকে নির্দেশ দেওয়া হয়নি বলে মনে করা হচ্ছে। এ পুরো বিষয়টি নিয়ে বিজেপি নেত্রী প্রিয়াঙ্কা শর্মা রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় কে আক্রমণ করেছেন।

 

 

 

 

 

 

 

তিনি বলেন, ‘ নিজের রাজ্যে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় গণতন্ত্র কে হত্যা করে আর দেশের গণতন্ত্র বাঁচাতে আন্দোলন করছেন। একটা সিনেমার সমস্ত রকম ছাড় পত্র থাকলেও সেটিকে আটকে দেওয়া হচ্ছে।’ এটা বাকস্বাধীনতার উপরে হস্তক্ষেপ করা হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন এই বিজেপি নেত্রী। এই প্রসঙ্গে হিন্দি সিনেমা পদ্মাবতের সময় চলে নানান বিতর্কের উদাহরণ দেন প্রিয়াঙ্কা শর্মা। তিনি বলেন,’ পদ্মাবত নিয়ে যখন বিতর্ক সৃষ্টি হচ্ছিল তখন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় অনেক কথা বলছিলেন। এখন নিজে কী করছেন?দেশে গণতন্ত্র বাঁচানোর কথা বলে নিজের রাজ্যে গণতন্ত্রকে হত্যা করছেন তিনি।পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলার বিষয়ে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেছিলেন তদন্ত না করে পাকিস্তান কে দোষী বলা উচিত নয়।

 

 

 

 

 

এই প্রসঙ্গে প্রিয়াঙ্কা শর্মা বলেছেন,’ জাওয়ানদের উপর এত বড় হামলা হওয়ার পরেও উনি দোষীদের হয়ে কথা বলছেন। উনি একজন ভারতীয় হয়ে কিভাবে পাকিস্তানি এজেন্টদের মতন কথা বলেছেন।’ জাওয়ানদের বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতাকে প্রকৃত ভারতীয়দের মতন আচরন করতে অনুরোধ করেন প্রিয়াঙ্কা শর্মা। এই বিষয়ে আরো নতুন আপডেটের জন্য চোখ রাখুন আমাদের ওয়েব পোর্টালটি তে।

Related Articles

Back to top button