অপেক্ষার অবসান ঘটিয়ে, আগামী 10 জুন থেকে শুরু করা হতে চলেছে বাংলা ধারাবাহিকের শুটিং, তবে

গোটা দেশজুড়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ রুখতে কেন্দ্রের তরফে ডাকা লকডাউনের জেরে গত দু’মাসের ও বেশি সময় ধরে বন্ধ ছিল সমস্ত রকম শুটিং।অবশেষে দু মাস শুটিং বন্ধ থাকার পর সুখবর নেমে এলো টলিপাড়ায়। প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানা যাচ্ছে আগামী 10 জুন থেকে আবার শুরু করা হতে চলেছে বাংলায় ধারাবাহিকের শুটিং আর গতকাল বৃহস্পতিবার এমনটাই ঘোষণা করা হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। অর্থাৎ দীর্ঘ দু’মাস বিরত থাকার পর আবারও নিজেদের ছন্দে ফিরতে চলেছেন শিল্পী, কলাকুশলীরা তাদের সেটে।

তবে এবার শুটিং শুরু করা হলেও আগের মত পুরোদমে শুটিং করা যাবে না, এক্ষেত্রে মেনে চলতে হবে কিছু নির্দেশিকা এমনটাই জানানো হয়েছে। আর কীভাবে শুটিং করা হবে কিংবা কীভাবে চলবে এই শুটিংয়ের কাজ সেই সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে নাজেহাল হয়ে পড়েছিল টলিপাড়া। যদিও এক্ষেত্রে পঞ্চম দফার লকডাউন শুরু হবার পরই রাজ্য সরকারের তরফ থেকে শুটিংয়ের ক্ষেত্রে ছাড়পত্র মিলেছিল ঠিকই তবে সেক্ষেত্রে কেন্দ্রের তরফে বেঁধে দেওয়া একাধিক সুরক্ষা বিধি মেনে কীভাবে চলবে শুটিংয়ের কাজ এই সিদ্ধান্তে পৌঁছাতে অনেক মাথা ঘামাতে হয়েছে টলিপাড়া কে।

এই নিয়ে হয়েছে দফায় দফায় বৈঠক কীভাবে মানা হবে এই নির্দেশিকা, আর কীভাবেই বা করা হবে শুটিং? এই নিয়ে আটিস্ট ফোরাম-সহ বিভিন্ন সংগঠনের সঙ্গে পর্যালোচনা করেছে রাজ্য সরকার। আর যে কারণেই পয়লা জুন থেকে শুটিংয়ের ছাড়পত্র মেলার পরও শুরু করা যায়নি শুটিং। গতকাল বৃহস্পতিবার দিন মন্ত্রী অরূপ বিশ্বাস এর সঙ্গে টলিপাড়ার সব সংগঠনের মিটিং বসার পর অবশেষে যে ফলাফল বেরিয়ে আসে সেখানে রাজ্য সরকারের তরফে জানানো হয় আগামী 10 ই জুন থেকে শুটিংয়ের কাজকর্ম শুরু হয়ে যাবে সমস্ত নির্দেশিকা মেনেই।

 

তবে প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী যা জানতে পারা যাচ্ছে সেখানে যানা যাচ্ছে আপাতত এই শুটিং সেটে 10 বছরের কম বয়সী শিশু-শিল্পীদের কিন্তু শুটিং করার ক্ষেত্রে নিষেধাজ্ঞা জারি রয়েছে।আর এক্ষেত্রে যারা 65 বছরের বেশি প্রবীণ অভিনেতা বা অভিনেত্রী রয়েছেন তারা চাইলে মুচেলেকা দিয়ে শুটিং করতে পারবেন বলে জানা গেছে। এখন যে খবরটি বেরিয়ে এসেছে সেটির মাধ্যমে জানা যাচ্ছে ধারাবাহিকের শুটিং শুরু হয়ে যাচ্ছে তবে এখনো পর্যন্ত সিনেমার শুটিং কবে থেকে শুরু হবে সে বিষয়ে কোনো তথ্য বেরিয়ে আসেনি বা কোন কিছু নির্ধারিত করা হয়নি এ বিষয় নিয়ে।

তবে আগামী রবিবার দিন সিনেমার শুটিং বিষয়ক চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে। তবে শুধু তাই নয় এই মুহূর্তে যে ধারাবাহিকের শুটিং গুলি করা হবে সে ক্ষেত্রে থাকবে না কোনরকম ঘনিষ্ঠ দৃশ্য, সাথে সাথে থাকবে না কোনো চুমু বা আলিঙ্গন।করোনার জেরে এই সমস্ত কিছু এখনো বাদ দিয়ে দেওয়া হয়েছে।