এবার থেকে লোকাল ট্রেনের টিকিট কাটতেও দাঁড়াতে হবে না আর লম্বা লাইনে,ফোনের মাধ্যমেই কেটে নিতে পারবেন গন্তব্যস্থলের টিকিট..

সেই দিন শেষ যখন টিকিট কাটার জন্য বাইরে লম্বা লাইনে লাইন দিয়ে অপেক্ষা করতে হতো, এবার থেকে রেলের অসংরক্ষিত কামরার টিকিট বুকিং করা যাবে অনলাইনে। এবার থেকে ভারতীয় রেলের টিকিট বুক করতে আর দাঁড়াতে হবে না লম্বা লাইনে, এখন থেকে UTS অ্যাপের মাধ্যমে অনলাইনে বুকিং করা যাবে ট্রেনের টিকিট। আর এটি গত নভেম্বর মাস থেকে শুরু হয়ে গেছে গোটা দেশজুড়ে এখন থেকে গোটা দেশে লোকাল ট্রেনের টিকিট কাটা যাবে অনলাইনের মাধ্যমেই।

এবার থেকে দেশের সাধারণ মানুষকে টিকিট কাটার জন্য কাউন্টারের সামনে লম্বা লাইনে দাঁড়াতে হবে না। খুব সহজেই এখন ফোনের মাধ্যমেই কেটে নেওয়া যাবে আপনার গন্তব্যস্থলের টিকিট। UTS অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট কাটতে পারবেন গ্রাহকেরা। তবে বলে রাখি পাঁচ বছর আগেই এই সুবিধাটি চালু করা হয়েছিল রেলের তরফ থেকে। তবে সেই সময় মুম্বাই ছাড়া সেরকম সফল হয়নি। রেলের জন্য প্রায় 15 টি জোনে এই অ্যাপের মাধ্যমে টিকিট কেনার পরিষেবা চালু রয়েছে।

তবে আগে এই সুবিধা মিলত দূরপাল্লার ট্রেনের ক্ষেত্রে তবে এখন লোকাল ট্রেনের ক্ষেত্রেও এই সুবিধা মিলবে। তাছাড়া এখন এই অ্যাপের মাধ্যমেই কেটে নিতে পারবেন আপনার মান্থলি এবং স্টেশনের টিকিট ও।আর এই অ্যাপসে পেমেন্ট করার জন্য সুবিধা রয়েছে ডেবিট ক্রেডিট কার্ড অথবা নেট ব্যাঙ্কিং এর। কীভাবে কেটে নেবেন এই অ্যাপসের মাধ্যমে টিকিট–তবে বলে রাখি এই অ্যাপস এর সুবিধা পেতে গেলে সেই যাত্রীকে নির্দিষ্ট স্টেশন থেকে দু থেকে তিন কিলোমিটার দূরে থাকতে হবে, আর এই দূরত্বে থাকলে একসঙ্গে চারটি টিকিট কাটতে পারা যাবে।

নথিভূক্ত ব্যবহারকারী টিকিট কাটার সুবিধা ছাড়াও, প্লাটফর্মে টিকিট কাটতে পারবে। তাছাড়া এই অ্যাপসের মাধ্যমে কাটা যাবে মান্থলি টিকিট ও।UTS এটিকে অতি সহজেই আপনি আপনার প্লে স্টোর থেকে ডাউনলোড করে নিতে পারবেন তারপর অ্যাপটিকে খোলার পর আপনার নিজের নাম, মোবাইল নম্বর, ইমেইল আইডি দিয়ে রেজিস্টার করে নিতে হবে। এরপর আপনার মোবাইল নম্বরে চলে আসবে একটি OTP। আর এবার আপনি আপনার আইডি ও পাসওয়ার্ড পেয়ে যাবেন। ব্যাস তারপর আবার কি এবার আপনার গন্তব্যস্থলের জায়গাটি বেছে নিয়ে তারপর কেটে নিতে হবে টিকিটটি।

শুধু তাই নয় এখান থেকে টিকিট কাটলে রয়েছে ক্যাশব্যাক এর ও সুবিধা। তবে প্রয়োজনীয় যে জিনিস গুলি টিকিট কাটার সময় লাগবে সেগুলো হলো নিম্নরুপ, যখন আপনি এই অ্যাপটির মাধ্যমে টিকিট কাটবেন তখন অবশ্যই মাথায় রাখতে হবে আপনাকে সেই স্টেশন থেকে দু থেকে তিন কিলোমিটার দূরত্বে থাকতে হবে, আর দ্বিতীয়ত একজন ব্যক্তি এই অ্যাপের মাধ্যমে একসঙ্গে চারটি টিকিট কাটতে পারবেন তার বেশি টিকিট কাটতে পারবেন না এতে। আপনার কনফার্ম টিকিট এর জন্য একটি পিএনআর (PNR) নম্বর থাকবে।আর মোবাইলে টিকিট কাটার সময় অবশ্যই জিপিএস (GPS) টি অন করতে হবে।