ঋণের কিস্তি স্থগিতের সময়সীমা দু’বছর পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে, কেন্দ্রের তরফে জানানো হল শীর্ষ আদালতে

গতকাল মঙ্গলবার দিন EMI স্থগিত অথবা ঋণের কিস্তির উপর মোরাটোরিয়াম এর সুবিধা পাওয়ার ভিত্তিতে যে মামলা দায়ের করা হয়েছিল কাল তার শুনানি ছিল। যেখানে কেন্দ্রীয় সরকারের তরফ থেকে সুপ্রিম কোর্টে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে ঋণের কিস্তি মকুবের সময়সীমা আরও দু’বছর বাড়ানো যেতে পারে এক্ষেত্রে। এর আগে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতা জানিয়েছিলেন কিস্তির ব্যাপারে যে স্থগিতের বিষয়টি রয়েছে সেটি যেন কেন্দ্র, ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন ও রিজার্ভ ব্যাঙ্ক একত্রে পর্যালোচনা করে কোনো সিদ্ধান্ত নিক।

দেশজুড়ে করোনা পরিস্থিতি সামাল দিতে বাড়ানো হয়েছিল লকডাউন এর মেয়াদকাল যার ফলে অত্যন্ত দুরবস্থায় ছিল দেশবাসী আর এরকম পরিস্থিতিতে ব্যাংকের অনুমোদন এবং অন্যান্য আর্থিক প্রতিষ্ঠান গুলোর ওপর মোরাটোরিয়াম এর সুবিধা প্রদান করে।এবং দুই পর্যায়ে মোট ছয় মাসের জন্য দেওয়া হয়েছিল এই সুবিধা যার মেয়াদকাল শেষ হয়েছে গত 31শে আগস্ট এরই ভিত্তিতে দায়ের করা মামলায় মঙ্গলবার দিন তুষার মেহতা জানিয়েছেন ঋণ পরিশোধের উপর EMI স্থগিত অথবা মোরোটোরিয়ামের মেয়াদ দুই বছর পর্যন্ত বাড়ানো যেতে পারে।

করোনা মহামারীর জেরে যেসব আর্থিক দিক গুলি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সেগুলি পর্যালোচনা করে খতিয়ে দেখা হচ্ছে যদিও এক্ষেত্রে ব্যাংক অ্যাসোসিয়েশন অফ রিজার্ভ ব্যাংক এবং কেন্দ্র আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্ত নিয়েছে এমনটাই জানান তিনি। এর পাশাপাশি তিনি একথা জানান যে বর্তমানে দেশে জিডিপির পরিমাণ 23 শতাংশ কমেছে ফলে অর্থনৈতিক চাপের বিষয়টি এড়িয়ে যান নি তিনি। এক্ষেত্রে আগামী দিনে কত শতাংশ সুদ কমানো হবে সে বিষয়ে এখনও পর্যন্ত কোন প্রকার নির্দেশনামা পেশ করা হয়নি কেন্দ্রের তরফ থেকে।

 

তাই গতকাল মঙ্গলবার দিন আদালতের তরফ থেকে অবিলম্বে এই বিষয়ে নির্দেশনামা পেশ করতে বলা হয়েছে। জানা যাচ্ছে আগামী বুধবার এই বিষয়ে নির্দেশনামা পেশ করা হতে পারে এবং সেই মামলার শুনানি হবে তারপরই এমনটাই জানিয়ে দিয়েছেন বিচারপতি। গত সপ্তাহে এই মামলার পরিপ্রেক্ষিতে শীর্ষ আদালতের তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছিল এক্ষেত্রে সরকারের অবস্থান পরিষ্কার করতে হবে, সর্বদা তারা রিজার্ভ ব্যাংকের পেছনে লুকিয়ে থাকতে পারে না এই ভাবে।

More Stories
পাকিস্তানের সমস্ত চেষ্টায় জলে চলে গেল, মোদীকে সর্বোচ্চ নাগরিক সম্মান দিলেন আমিরশাহির যুবরাজ