iPhone-এর সুরক্ষা বলয়কে ভেদ করা হ্যাকারকে এবার টুইটারের চেয়ারে বসাতে চলেছেন Elon Musk

শুরু হয়ে গেছে টুইটারে নতুন কর্মী নিয়োগ। আর শুরুতেই রয়েছে চমক। ইলন মাস্ক সমুদ্রে মুক্তো তোলার মতো করলেন কর্মী বাছাই। সেই দুর্লভ মুক্তোর নাম জর্জ হটজ। ২০০৭ সালে খবরে শিরোনামে উঠে এসেছিলেন এই মানুষটি।আইফোনের কড়া নিরাপত্তা বলয় ভেদ করে তিনি জনপ্রিয়তা অর্জন করেছিলেন। এবার এই জর্জ বসবেন টুইটারে চেয়ার।

আইফোন হ্যাক করে নিরাপত্তা বলয় ভেদ করে তার মধ্যে ঢুকে যাওয়া নেহাতই ছেলে খেলা নয়। এই কৃতিত্ব প্রথম অর্জন করেছিলেন জর্জ। সেই জর্জকে এবার টুইটারের সার্চ করার বিকল্পটি ঠিক করার দায়িত্ব দিলেন মাস্ক। যদিও এর জন্য অফুরন্ত সময় কিন্তু দেওয়া হয়নি তাঁকে। মাত্র ১২ সপ্তাহের মধ্যে এই সমস্যার সমাধান করতে হবে জর্জকে। গত বেশ কয়েক বছর ধরেই এই কাজ করে উঠতে পারেননি টুইটারের ইঞ্জিনিয়াররা, যা করে দেখাতে হবে জর্জকে।

কিন্তু এই কাজের বিনিময়ে তিনি কি পাবেন? প্রায় কিছুই না বললেই চলে। মাস্ক তাঁকে নিয়োগ করছেন একজন শিক্ষানবিশ অর্থাৎ ইন্টারশীপ পদে। এটি টুইট করে সেই খবর জানিয়েছেন জর্জ। খবর জানিয়ে তিনি লিখেছেন,”১২ সপ্তাহের জন্য শুধু ফ্রান্সসিসকোয় থাকা খাওয়ার বিনিময়ে এই শিক্ষানবিশীর চাকরি দেওয়া হয়েছে আমাকে। আমার এখন প্রধান লক্ষ্য, পৃথিবীতে আরো ভালো করে তোলা।

প্রসঙ্গত, টুইটার অধিগ্রহণের পর থেকেই একের পর এক বিতর্কে জড়িয়ে ছিলেন ইলন মাস্ক। টুইটার অধিগ্রহণ করার পরেই সাবস্ক্রিপশনের দাম বাড়িয়ে দেওয়া থেকে শুরু করে কর্মী ছাটাই, বারবার খবরে শিরোনামে উঠে এসেছে মাস্কের নাম। এবার হ্যাকারকে কর্মী হিসেবে নিয়োগ করেই আরো একবার সকলকে তাক লাগিয়ে দিলেন তিনি।

তবে টুইটার অধিগ্রহণের পর থেকেই টেসলা কোম্পানির দিকে কিন্তু একেবারেই নজর দিতে পারছেন না ইলন মাস্ক, যার ফলে এখন টেসলা প্রায় ক্ষতির সম্মুখীন হতে চলেছে। যদিও এই নিয়ে আপাতত চিন্তা করতে নারাজ মাস্ক, তিনি মজেছেন নতুন খেলায়।