দেশনতুন খবরবিশেষরাজনৈতিক

পুলওয়ামা মন্তব্যের জেরে এবার সিধুর মন্ত্রী পদ কেড়ে নেওয়া দাবি…

পুলওয়ামা জঙ্গি হামলা পরে পাকিস্তানের পাশে হয়ে দাঁড়ানোর জন্য পাঞ্জাব বিধানসভায় বিরোধীদের প্রবল বিক্ষোভের মুখে পড়তে হচ্ছে নভজ্যোত সিং সিধু কে। বিতর্ক যেন পিছু ছাড়ছে না এই পাপ্তন ক্রিকেটারের। সোমবার অধিবেশন শুরু হওয়ার পর থেকেই উত্তপ্ত ছিল পাঞ্জাব বিধানসভা, এই দিন শিরোমণি অকালি দল পাঞ্জাবের মন্ত্রীকে বিধানসভা থেকে সরিয়ে দেওয়ার জন্য দাবি তুলতে লাগেন। বিধানসভায় তখন উপস্থিত ছিলেন সিধু ও এই নিয়ে বিরোধীদের সঙ্গে তিনি বাক যুদ্ধেও জড়ান। আপনাকে বলে রাখি পাঞ্জাব বিধানসভায় তখন বাজেট অধিবেশন চলছে অধিবেশন শুরুর আগেই বিধানসভার বাইরে অকালি দলের বিধায়করা সিধুর পাকিস্তান সফরের কিছু ছবি পুড়িয়ে দেন।

তবে এখানেই শেষ নয় কালো ব্যাচ পড়ে তারা সিধুর বিরুদ্ধে স্লোগান তুলতে শুরু করে এরপর কক্ষের ভেতর থেকে অকালি নেতা বিক্রম সিং মাজিথিয়া প্রবল আক্রমণ করে সিধুকে। তবে প্রতিবাদ জানান এই কংগ্রেস নেতা নভজ্যোত সিং সিধু। এই নিয়ে দুজনের মধ্যে চরম বাকদন্ধীতা শুরু হয়ে যায় এমনকি উত্তেজিত হয়ে নিজের আসন থেকে উঠে পড়েন সিধু। আপনাদের বলে রাখি যখন পুলওয়ামায় জঙ্গি হামলায় গোটা দেশ পাকিস্তানের বিরুদ্ধে স্লোগান তুলেছিল ঠিক সেই সময়ে এই পাঞ্জাবের মন্ত্রী নভজ্যোত সিং সিধুর গলায় শোনা গিয়েছিল উল্টো সুর। তিনি বলেছিলেন একটা জঙ্গি হামলার ফলে গোটা দেশকে এইভাবে দায়ী করা যেতে পারে না। আর সেদিন থেকেই সিধুর এই মন্তব্যের বিরোধিতা করতে থাকেন অনেকেই সোশ্যাল মিডিয়াতে এই নিয়ে সমালোচনা তেও পড়তে হয় নভজ্যোত সিং সিধু কে।

এমনকি এর দরুন সিধুকে সনি টিভি চ্যানেলের একটি জনপ্রিয় কমেডি শো “দ্যা কাপিল শর্মা শো” থেকে বাদ দিয়ে দেওয়ার জন্য দাবী জানান সাধারণ মানুষজন। এমনকি টুইটারে বয়কট সিধু নামে হ্যাশট্যাগ দিয়ে শুরু হয়ে যায় এক প্রকার আন্দোলন,সবাই দাবি তুলতে লাগেন সিধুকে বয়কট করা হোক কিংবা তারা চ্যানেল দেখা বন্ধ করে দেবেন।আর এরপরই ওই শো থেকে সিধুকে দূরে সরিয়ে দেয় চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।

Related Articles

Back to top button