উত্তরপ্রদেশে জারি কড়া নির্দেশিকা নিয়ম না মানলে ডাক্তারদের জরিমানা এক কোটি টাকা

উত্তরপ্রদেশে চিকিৎসকদের জন্য সিদ্ধান্ত নিল যোগী সরকার। স্নাতকোত্তর পাশ করার পর চিকিৎসকদের 10 বছর সরকারী চাকরি করতেই হবে। তার আগে চাকরি ছেড়ে দিলে এক কোটি টাকা জরিমানা দিতে হবে। উত্তপ্রদেশের মুখ্যসচিব অমিত প্রসাদ শনিবার এই নতুন নিয়মের কথা জানিয়েছেন। অমিত মোহন জানিয়েছেন স্নাতকোত্তর ডিগ্রিতে পড়ার মাঝপথেই কেউ একবার পড়া ছেড়ে দিলে তিনি পরবর্তী তিন বছর আর স্নাতকোত্তর স্তরে ভর্তি হতে পারবেন না। প্রসঙ্গত করোনা মহামারীর সময় ডাক্তারদের সংখ্যা কম থাকায় আগেও এই ধরনের পদক্ষেপ নিয়েছে সরকার।

 

কংগ্রেসের ব্যর্থতার কারণ হিসাবে এই দুই ব্যক্তিকে তুলে ধরেছেন প্রণব মুখোপাধ্যায়,”দ্য প্রেসিডেন্সিয়াল ইয়ারস” বইটি-তে

 

 

অগাস্ট মাসে সরকারি হাসপাতাল থেকে এমবিবিএস কিংবা স্নাতকোত্তর ডিগ্রি অর্জন করা ডাক্তারদের একটা নির্দিষ্ট সময়ের জন্য সরকারি হাসপাতালে কাজ করা বাধ্যতামূলক করা হয়েছিল। নতুন নিয়মে বিশেষ সুযোগ থাকছে এমবিবিএস দের জন্য। তাদের জন্য থাকছে বিশেষ নম্বরের ব্যবস্থা। সরকারি হাসপাতালের এক বছর চাকরি করলে 10 নম্বর করে পাবেন। কেউ তিন বছর সরকারি হাসপাতলে চাকরি করলে 30 নম্বর পাবেন। এই নম্বর পরীক্ষায় সফল হতেও বিশেষভাবে সাহায্য করবে।

 

এই সবকটি পদক্ষেপে পিছনে রয়েছে সরকারি হাসপাতালের ডাক্তারদের পর্যাপ্ত সংখ্যার অভাব এবং তা পূরণের লক্ষ্য। উত্তরপ্রদেশের সরকারি হাসপাতালের ডাক্তারদের পাওয়া যাচ্ছিল না। সেই সময় থেকেই ডাক্তারদের সংখ্যা বাড়ানোর দিকে নজর দিয়েছিল যোগী সরকার। তার জেরেই এই নতুন নির্দেশিকা৷