ভুলেও বাড়িতে লাগাবেন না এই গাছগুলি, নাহলে জীবনে নেমে আসবে ঘোর অমঙ্গল

আমরা অনেকেই বাড়ি বানানোর সময় বাস্তু শাস্ত্রকে মূল্যায়ন করি। কিন্তু একবার ঘর তৈরি হয়ে গেলে, আর আমরা অনেক কিছু নিয়ম ভুলে যাই যা বাস্তু শাস্ত্র তে দেওয়া আছে। অনেক লোকই আছেন যারা বাড়ির মধ্যে বাগানের যত্ন নিতে পছন্দ করেন। অনেক সময় জায়গার অভাবে বাড়ির ভিতরেই টবের মধ্যে গাছ লাগানো হয়।

কিন্তু আপনি জানেন কি, এমন কিছু গাছ পালা আছে যেগুলো কখনই ঘরের মধ্যে লাগানো উচিত নয়। যার জন্য এরপর আসে বিশ্বে গার্হস্থ্য বিপর্যয়। আসুন জেনে নিই আমরা যে কোন গাছগুলো বাড়ির মধ্যে লাগানো উচিত নয়।

কুল গাছ: বাস্তু শাস্ত্র মনে করে বাড়ির মধ্যে কুল গাছ থাকলে নাকি দেবী লক্ষ্মীর বাস চলে যায় সেই বাড়ি থেকে। তাই সেই জন্য ঘরে খারাপ শক্তি যদি আনতে না চাইলে আপনার কখনই বাড়ির মধ্যে কুল গাছ লাগানো উচিত নয়।

খেজুর গাছ : যেই বাড়িতে খেজুর গাছ আছে সেই জায়গায় দারিদ্র্যের শেষ হয় না। অনেক অর্থনৈতিক সংকট এর সাথে সাথে ছেয়ে আসে প্রচুর শারীরিক অসুস্থতা। তাই বাস্তু অনুযায়ী বাড়িতে খেজুর না লাগানোই ভালো।

তেঁতুল গাছ: তেঁতুলের টক স্বাদ হওয়ার কারণে বাড়ির মধ্যে এই গাছ লাগানোর ফলে আয় বৃদ্ধি করা অনেক কঠিন হয়ে পড়ে।বাড়ির সদস্যদেরও নানা রকমের শারীরিক সমস্যা দেখা দেয়। তাই বাড়ির মধ্যে এই গাছ না লাগানোই ভালো।

বাঁশ গাছ: বাঁশ গাছ আমাদের দৈনন্দিন জীবনে খুবই উপকারী, কিন্তু এই গাছ বাড়ির মধ্যে লাগালে নানা সমস্যা কিন্তু আপনার পিছু ছাড়বে না।

বনসাই গাছ: এই গুলি হচ্ছে নানা বড়ো গাছ যেমন আম, জাম, কাঠাল, প্রভৃতি গাছ গুলো কে জাপানিজ পদ্ধতিতে কেমিকেল এর সাহায্যে ছোটো করে রেখে দেওয়া , আর দৈর্ঘতায় বাড়তে না দেওয়া, গাছের বয়স বাড়লেও সাইজ বাড়বে না। এই গাছ ঘরের মধ্যে রাখলে সুখ-শান্তি নষ্ট করে দেয় এবং পরিবার এর সদস্যদের মধ্যে এক প্রকারের অশান্তি সৃষ্টি করে। তাই বাড়িতে কখনই এই গাছ না লাগানোই আপনার জন্য ভালো।