কার্যালয়ে ইন্টার্ন নিয়োগ করছেন দিলীপ ঘোষ, ৭ঘন্টার কাজ- দেওয়া হবে বেতন, আবেদন পদ্ধতি জানতে

রাজনৈতিক বিষয়ে কী রুচি রয়েছে আপনার? আর কীভাবেই বা এখানে কাজ হয় তা জানতে চান? তাহলে আপনার জন্য রয়েছে দুর্দান্ত সুযোগ আজই আবেদন করুন মেদিনীপুর সাংসদ দপ্তরের আওতায় বেশ কিছু ইন্টার্নশিপ কাজের জন্য। এবার মেদিনীপুরের সাংসদ দিলীপ ঘোষ বিভিন্ন কাজের জন্য ইন্টার্নশিপ অর্থাৎ শিক্ষানবিশ নিয়োগ করতে চলেছেন। শুধু তার নয় এই কাজের জন্য ইন্টার্নশিপ প্রার্থীদের দেওয়া হবে আকর্ষণীয় মানের বেতনও।

 

যদিও এই পদে কাজের জন্য কোনো ন্যূনতম যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা লাগবে না। বিজেপি সংসদ কর্তৃক বিজ্ঞপ্তি অনুসারে এই পদে কাজের জন্য কর্মীদের ৭ঘন্টা ডিউটি করতে হবে। কাজের সময় হল সকাল ১১ টা থেকে সন্ধে ৬ টা অব্দি। এক্ষেত্রে অফিসে এসেই কিংবা বাড়িতে বসেই কাজ করা যাবে বলে জানানো হয়েছে। চারটি বিষয়ে শিক্ষানবিস নিয়োগ করা হবে। আইন বিষয়ে, গ্রাফিক ডিজাইনার, রাজনৈতিক প্রচারের রণকৌশল, সামাজিক যোগাযোগ প্রচার।

আইন বিষয়ে শিক্ষানবিশদের বিভিন্ন আইনজীবীদের তত্ত্বাবধানে থেকে আইন বিষয়ে গবেষণা চালাতে হবে। বিভিন্ন বিল এবং নীতি সংক্রান্ত বিষয়ে আইনজীবীদের সাহায্য করতে হবে এই প্রার্থীদের। এরসাথে আরটিআই (তথ্য জানার অধিকার) মামলা কীভাবে দায়ের করতে হয় সেই প্রশিক্ষণও দেওয়া হবে এই প্রার্থীদের। অপর দিকে গ্রাফিক ডিজাইনারদের শেখানো হবে ভিডিও এডিটিং, কাটুন এবং পোস্টার নির্মাণ প্রভৃতি বিষয়। অপরদিকে রাজনৈতিক রণকৌশল তৈরীর ইন্টার্নশিপ প্রার্থীদের শেখানো হবে বিভিন্ন জায়গা ঘুরে মানুষের মন বোঝা এবং বিভিন্ন নীতি কিভাবে নির্ধারণ করা যায় সেই কৌশল।

 

 

আর রাজনৈতিক রণকৌশল তৈরীর ইন্টার্নশিপ প্রার্থীরা যদি বিভিন্ন জায়গায় ঘোরেন তাহলে যাতায়াত খরচা দেওয়া হবে সাংসদ দপ্তর থেকে। আর চতুর্থ বিভাগটিতে আছে সামাজিক যোগাযোগ প্রচার এবং যোগাযোগ বৃদ্ধি। এই বিভাগের ইন্টার্নশিপ প্রার্থীদের নতুন প্রকল্পের বাস্তব রূপ দিয়ে প্রত্যন্ত এলাকায় সেগুলি পৌঁছে দেওয়ার কাজই হল এই প্রার্থীদের।

আবেদনের পদ্ধতি- এই পথ গুলির মধ্যে যেকোন একটিতে বা সবগুলোতেই প্রার্থীরা আবেদন করতে পারে। আবেদন করার জন্য প্রার্থীরা অবশ্যই বায়োডেটা [email protected]এই ই-মেইলে মেইল করতে হবে। এর সঙ্গে সিসি করতে হবে [email protected] এই ইমেল আইডিতে। বায়োডাটার পাশাপাশি একটি চিঠিতে প্রার্থীরা জানাবেন যে তারা কতদিন কাজ করতে পারবেন এই সমস্ত পদগুলিতে। দিলীপ ঘোষ এই বিষয়ে জানিয়েছেন যে তিনি নিজে এই কাজগুলি শুরু করতে চাইছেন এবং মানুষ জনের কাছ থেকে খুব ভালো সাড়া পাচ্ছেন।