স্পেশ্যাল কুপনের পরিপ্রেক্ষিতে মিলবে ডিজিটাল রেশন কার্ড, ঘোষণা খাদ্য দপ্তরের

করানোর সংক্রমণ ছড়িয়ে পড়ার হাত থেকে বাঁচতে সারাদেশ জুড়ে লকডাউন ঘোষণা করার পর থেকেই গরীব,দুস্থ পরিবারের জন্য বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেয় কেন্দ্র সরকার এবং রাজ্য সরকার উভয়ই। তবে প্রশ্ন উঠেছিল যে যাদের এখনও পর্যন্ত ডিজিটাল রেশন কার্ড নেই বা এখনও পর্যন্ত সেই কাগজের রেশন কার্ড রয়েছে তারা কি রেশন পাবে না। এই প্রশ্ন উঠার পর থেকেই সরকারের তরফ থেকে এক ধরণের স্পেশাল কুপন এর ব্যবস্থা করা হয়।

এই কুপন দেখিয়ে এতদিন মিলত রেশন। আর এবার থেকে এই স্পেশাল কুপন এর পরিবর্তে পাওয়া যাবে ডিজিটাল রেশন কার্ড। হ্যাঁ খাদ্য দপ্তরে তার থেকে এমনটাই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। এ বিষয়ে প্রত্যেকটি জেলা শাসকের কাছে একটি করে নির্দেশিকা পাঠানো হয়েছে সরকারের তরফ থেকে। এমনকি কলকাতার পুরো কমিশনকে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে রাজ্য সরকারের তরফ থেকে। রেশন কার্ড পাওয়ার জন্য সমস্ত শর্ত পূরণ করা থাকলে সেই ব্যক্তিকে ডিজিটাল রেশন কার্ড দেওয়া হবে।

আর এটি যাচাই করবে খাদ্য দপ্তরের কর্মী আধিকারিকরা। সম্প্রতি মে এবং জুন মাসে যে সমস্ত গ্রাহকরা এ স্পেশাল কুপন এর মাধ্যমে রেশন তুলেছিলেন তাদেরকে যাচাই করবে দফতরে কর্মী আধিকারিকরা। এই প্রক্রিয়া আগামী 25 জুলাই পর্যন্ত চলবে বলে জানানো হয়েছে খাদ্য দপ্তর এর তরফ থেকে। এরপর 30 জুলাই এর মধ্যে কার্ডের অনুমোদন প্রক্রিয়া চালু হয়ে যাবে। যে সমস্ত মানুষেরা স্পেশাল কুপন পাওয়া সত্ত্বেও এখনো পর্যন্ত খাদ্য সামগ্রী সংগ্রহ করে নি রেশন দোকান থেকে, তাদের বিষয়টি দ্বিতীয় ধাপে দেখা হবে।

এই দ্বিতীয় ধাপে কাজ 14 আগস্ট শেষ করার জন্য নির্দেশিকা দেওয়া হয়েছে সমস্ত জেলা গুলিকে। এক্ষেত্রে অনুমোদন প্রক্রিয়া শেষ করার দিন ধার্য হয়েছে আগামী 25 আগস্ট। 24 শে জুনের পর থেকে স্পেশাল কুপন এর জন্য আবেদন গ্রহণ করা হয়নি। তাই এখনো পর্যন্ত যদি কারো কাগজের রেশন কার্ড থেকে থাকে তাহলে সেক্ষেত্রে অনলাইনে আবেদন করতে পারেন সাধারণ মানুষেরা। অনলাইনে আবেদন করার প্রক্রিয়া শেষ হওয়ার পর আগামী 7 সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেই সমস্ত আবেদন গুলি যাচাই করার প্রক্রিয়া শেষ করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে খাদ্য দপ্তরের তরফ থেকে।

তবে যাদের এখনও পর্যন্ত কাগজের রেশন কার্ড রয়েছে তারা অনলাইনে কীভাবে আবেদন করবেন সেই বিষয়ে কোন রকম নির্দেশিকা এখনো পর্যন্ত দেয়নি খাদ্য দপ্তর। এ বিষয়ে অল ইন্ডিয়া ফেয়ার প্রাইস শপ ডিলার্স অ্যাসোসিয়েশনের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বম্ভর বসু জানিয়েছেন যে, ” সকলের জন্য খাদ্য সামগ্রী দেওয়ার কথা বলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাই সবাই যাতে রেশন কার্ড পান তার জন্য আমরা সমস্ত রকম সহযোগিতা করতে রাজি। সবাই যাতে রেশন কার্ড পান সেই বিষয়টিও খাদ্য দপ্তরের দেখা উচিত।”