তারকা প্রার্থীদের নিয়ে একাধিক জায়গাতে বিরোধী- বিক্ষোভ, মমতা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়ের হয়ে সরব তৃণমূল সাংসদ দেব

গতকাল অর্থাৎ ৫ মার্চ তৃণমূলের সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ভোটের মাটিতে লড়াই করবার জন্য প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেছেন। ২৯১ জন প্রার্থী ঠাঁই পেয়েছে তৃণমূলের প্রার্থী তালিকাতে। এবারের প্রার্থী তালিকায় স্থান পেয়েছেন বেশিরভাগ তারকারা। তাই পুরনো বিধায়করা অনেকেই এবার প্রার্থী তালিকায় নাম তোলাতে পারেননি। এই কারণেই তৃণমূলের অন্দরে আবারো গোষ্ঠী দ্বন্দ্বের সঞ্চার হয়েছে। প্রার্থী তালিকায় নাম না ওঠায় বিভিন্ন বিধায়করা ক্ষুব্ধ হয়েছেন। অনেকেই তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে চলে গেছেন। ঠিক এই মুহূর্তে মমতা ব্যানার্জির পাশে দাঁড়ালেন সংসদ তথা টলিউড নায়ক দেব।

প্রার্থী তালিকায় টিকিট না পাওয়ায় সাংবাদিকদের সামনে হাউ হাউ করে কেঁদে ফেললেন সোনালী গুহ। আবার প্রার্থী তালিকায় নাম না ওঠায় আরাবুল ইসলাম ও তৃণমূলের উপর নিজের ক্ষোভ উজার করে দিলেন। এছাড়াও আরো কয়েকটি বিধায়করা প্রার্থীপদ না পাওয়ায় গেরুয়া শিবিরে যোগদান করেছেন। এই সময় নেহাতই দেবদূতের মত মুখ্যমন্ত্রীর পাশে এসে দাঁড়ালেন দীপক অধিকারী।

 

পশ্চিম মেদিনীপুরের সাংসদ দেব ডেবরায় তৃণমূলের প্রার্থী হুমায়ুন কবীরের হয়ে নির্বাচনী প্রচার সারেন। এই দিন তিনি প্রার্থী তালিকা নিয়ে যারা ক্ষোভ প্রকাশ করেছে তাদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, দিদি যাদের ভালো মনে করেছেন তাদেরকে প্রার্থী তালিকায় ঠাঁই দিয়েছেন। সবার উচিত তাদের সম্মান করা। এছাড়াও দেব আরো জানিয়েছেন যে কাজের দিক থেকে মমতা ব্যানার্জির জুরি মেলা দায়। এর পাশাপাশি দেব মমতা ব্যানার্জিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন কারণ তিনি শিল্পীদের কাজের সুযোগ করে দিয়েছেন।

শুক্রবার তৃণমূল ভবনে সাংবাদিক সম্মেলনের মাধ্যমে মমতা ব্যানার্জি ভোটের জন্য প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করেন। সদ‍্য যোগদানকারী রাজ চক্রবর্তী, সায়ন্তিকা বন্দ‍্যোপাধ‍্যায়, অদিতি মুন্সি, জুন মালিয়া, কাঞ্চন মল্লিক, সায়নী ঘোষ সকলেই প্রার্থী তালিকায় স্থান পেলেও পায়নি চেনা বিধায়ক- মন্ত্রীরা। বাঁকুড়া থেকে তৃণমূলের প্রার্থী হচ্ছেন সায়ন্তিকা। ব‍্যারাকপুরের তৃণমূল প্রার্থী রাজ চক্রবর্তী, রাজারহাট থেকে তৃণমূলের হয়ে লড়াই করবেন অদিতি দাশমুন্সি। আসানসোলের দক্ষিণ থেকে প্রার্থী হচ্ছেন সায়নী ঘোষ।