Skip to content

কাতারের এই বিলাসবহুল হোটেলে থাকছেন ডেভিড বেকহ্যাম,এক রাতের ভাড়া শুনে চোখ উঠবে কপালে

কাতারে চলমান ফিফা বিশ্বকাপ ২০২২-এ খেলছেন অনেক বড় তারকা। ইংল্যান্ডের একজন কিংবদন্তি খেলোয়াড়দের ডেভিড বেকহ্যামও কাতারে বিশ্বকাপ উপভোগ করছিলেন। ইংল্যান্ডের ম্যাচেও তাঁকে মাঠে দেখা গেছে। ডেভিড বেকহ্যাম এখানে কাতারের একটি পাঁচ তারকা হোটেলে ছিলেন। প্রায় এক সপ্তাহ থাকার পর তিনি এখন হোটেল থেকে চেক আউট করেছেন।


ডেভিড বেকহ্যাম, দোহাতে অবস্থিত ম্যান্ডারিন ওরিয়েন্টালে এক সপ্তাহ কাটিয়েছেন। আমরা যদি এই হোটেলে থাকার দাম এবং সুযোগ-সুবিধা নিয়ে কথা বলি, তাহলে আপনি অবাক হবেন। রিপোর্ট অনুসারে, ডেভিড বেকহ্যাম যে স্যুটে ছিলেন, সেখানে এক রাতের থাকার মূল্য প্রায় ২০,০০০ পাউন্ড, অর্থাৎ প্রায় ২০ লক্ষ টাকা। ডেভিড বেকহ্যাম হোটেলের উপরের তলায় থাকতেন, যার নিজস্ব ডাইনিং এরিয়া, উঠান, ব্যক্তিগত পুল এবং জিমের সুবিধা ছিল।


যদিও এক সপ্তাহ কাটিয়ে এই হোটেল থেকে চেক আউট করেছেন ডেভিড বেকহ্যাম, কারণ ধারণা করা হচ্ছে যে, অনেক ভক্ত ডেভিড বেকহ্যামের থাকার কথা জানতে পেরেছিলেন এবং এমন পরিস্থিতিতে হোটেলের বাইরে ভিড় হচ্ছিল, তাই ডেভিড বেকহ্যাম ওই হোটেল ছেড়ে দেন। লক্ষণীয়, অনেক আগেই ফুটবলকে বিদায় জানালেও ডেভিড বেকহ্যামের ফ্যান ফলোয়িং সারা বিশ্বে।


ফুটবল বিশ্বকাপ ২০২২এর আগেই কাতার, ডেভিড বেকহ্যামকে তাঁর দেশের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর করেছে। ডেভিড বেকহ্যাম ১০ বছরের জন্য কাতারের সাথে ১৫০ মিলিয়ন পাউন্ডের একটি চুক্তি স্বাক্ষর করেছে। আমরা যদি ডেভিড বেকহ্যাম ছাড়া ইংল্যান্ডের অন্য খেলোয়াড়দের কথা বলি, তবে সব খেলোয়াড় একসঙ্গে টিম হোটেলে থেকেছেন এবং অন্যদিকে, খেলোয়াড়দের পরিবার, স্ত্রী এবং বান্ধবীরা একটি ক্রুজে থেকেছেন। দোহার সমুদ্রতীরে রয়েছে কোটি টাকা মূল্যের একটি ক্রুজ জাহাজ।