ফের শুরু হচ্ছে দাদাগিরির নতুন সিজন! কীভাবে দেবেন অডিশন, বিস্তারিত জানতে

দাদা আর দাদাগিরির সম্পর্ক যে চিরপুরাতন। দিদি নাম্বার 1 যেমন রচনা ব্যানার্জি ছাড়া অসম্পূর্ণ তেমনি দাদাগিরি অসম্পূর্ণ দাদাকে ছাড়া। আগের আটটি সিজনের সাফল্যের পর ফের ii সম্প্রচারিত হয়েছিল এই কুইজ শো। আটটির মধ্যে সাত টি সিজন এর সঞ্চালনের দায়িত্ব পালন করেন ভারতীয় ক্রিকেট টিমের প্রাক্তন ক্যাপ্টেন তথা ভারতীয় ক্রিকেটের মহানায়ক তথা সকলের প্রিয় দাদা সৌরভ গাঙ্গুলী। সঞ্চালনায় এই রিয়েলিটি শো ক্রমাগত নিত্যনতুন মাইলস্টোন ছুঁয়েছে।

করোনা বিদায় না নিলেও করোনার প্রটোকল মেনে ধীরে ধীরে ছন্দে ফিরছে বাংলা বিনোদন জগৎ। শুরু হচ্ছে একাধিক নতুন ধারাবাহিক থেকে রিয়েলিটি শো। সারা সপ্তাহ সিরিয়াল দেখলেও সপ্তাহে দুদিন রাতে পরিবারের সাথে রিয়েলিটি শো দেখতে ভালোবাসে বহু দর্শক।এরই মধ্যে খুশির খবর রয়েছে বাঙালি দর্শকদের জন্য।খুব শীঘ্রই আসতে চলেছে জনপ্রিয় শো ‘ দাদাগিরি আনলিমিটেড’ সিজেন ৯।

প্রিয় দাদাকে আবারো টেলিভিশনের পর্দায় দেখার লোভ সামলানো সত্যিই দর্শকদের পক্ষে মুশকিলের ব্যাপার।২০০৯ সালে জি বাংলা চ্যানেলে প্রথম দাদাগিরির যাত্রা শুরু হয়। সৌরভ গাঙ্গুলীর জীবনের এক নতুন অধ্যায় শুরু হয়েছিল এই দাদাগিরির হাত ধরে। ৮ টির মধ্যে এই গেম শো এর ৭ টি সিজনের সঞ্চালনা করেছিলেন তিনি।
‘দাদাগিরি সিজন ৩ ‘ তেই কেবল মিঠুন চক্রবর্তী সঞ্চালকের ভূমিকা নিয়েছিলেন। এতে অন্যান্য সিজনের তুলনায় এই সিজন টি কিছুটা কম জনপ্রিয় হয়েছিল। তারপর থেকে অবশ্য আর দাদাগিরিতে দাদাকে সরানোর কথা ভুলেও ভাবতে পারেনি চ্যানেল কর্তৃপক্ষ।

সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে, ‘ দাদাগিরি আনলিমিটেড এর ‘ অডিশনের প্রোমো। কোভিড পরিস্থিতির কথা মাথায় রেখেই এবার অফলাইনে নয় বরং অনলাইন পদ্ধতিতে শুরু হবে অডিশন। অনলাইন অডিশন এর জন্য একটি পোস্ট ও শেয়ার করা হয়েছে সোশ্যাল মিডিয়াতে। এই পোস্টে লেখা আছে এই শোতে অংশগ্রহণ করতে চাইলে নিজের নাম, ছবি, বয়স, পেশা, জেলা সহ জীবনের দাদাগিরির কাহিনী লিখে বা ভিডিও করে পাঠাতে হবে – ৮০১৩৬০৪০৭৭ এই নম্বরে। পাশাপাশি নববিবাহিত বা বিবাহযোগ্য জুটি, জমজ ভাই বোনদের জন্য এক বিশেষ অডিশনের অ্যালার্ট বের করা হয়েছে।

এই শোতে সাধারণ মানুষ ছাড়াও মাঝে মধ্যে আসেন বিশেষ অতিথি ও তারকারা। তবে এই সিজনের সঞ্চালকের ভূমিকায় সৌরভ গাঙ্গুলীই থাকছেন কিনা, সে সম্পর্কে চ্যানেলের তরফ থেকে এখনো নিশ্চিতভাবে কিছু জানানো হয়নি। উল্লেখ্য ২০০৯ সালে যখন প্রথম দাদা গিরির যাত্রা শুরু হয় তখন সৌরভ গাঙ্গুলীর কথা মাথায় রেখেই শো এর পরিকল্পনা করা হয়েছিল। সেজন্য দাদাগিরি টাইটেল ট্রাক টি ও দাদার কথা মাথায় রেখে গেয়েছেন অরিজিৎ সিং। তাই দাদাগিরি মানেই দাদা যার কোন অনুরূপ হয় না। দাদাগিরির প্রতি পর্বেই বুদ্ধিমত্তার পাশাপাশি উঠে আসে নিত্য নতুন প্রতিভা।