শীতের শুরুতে আবারো রাজ্যে ধেয়ে আসছে সাইক্লোন জাওয়াদ,বাংলার একাধিক জেলাতে জারি সতর্কবার্তা

শীতের শুরুতেই আবার রাজ্যে কড়া নাড়ছে ঘূর্ণিঝড়। আন্দামান সাগরে আবার তৈরি হয়েছে একটি নতুন নিম্নচাপ। বর্তমানে নিম্নচাপটি দক্ষিণ-পূর্ব বঙ্গোপসাগরে অবস্থান করছে। আবহাওয়া দপ্তরের খবর অনুসারে খুব দ্রুত নিম্নচাপটি শক্তি সঞ্চয় করে রাজ্যের দিকে ধেয়ে আসছে। আগত ঘূর্ণিঝড় টিপ নাম সৌদি আরবের তরফ থেকে দেওয়া হয়েছে ‘জাওয়াদ’। ইতিমধ্যে এ রাজ্যে চিন্তা কারন হয়ে দাঁড়িয়েছে এই নিম্নচাপটি। অন্ধ এবং উড়িষ্যা উপকূলে নিম্নচাপ আছড়ে পড়ার সঙ্গে সঙ্গে প্রবল দুর্যোগের আশঙ্কা রয়েছে। মাঝারি থেকে অতি ভারী বৃষ্টি হতে পারে ।

প্রশাসনিক তৎপরতার সাথে সর্তকতা নেওয়া হচ্ছে। ইতিমধ্যে আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে জানিয়ে দেওয়া হয়েছে বাংলার উপরেই ঘূর্ণিঝড় কতটা প্রভাব পড়বে এবং কোন কোন জেলায় কী রকম বৃষ্টি হবে।আবহাওয়া দপ্তর থেকে জানানো হয়েছে শনিবার অর্থাৎ ৪ ডিসেম্বর ঘূর্ণিঝড়টি অন্ধ্র ও উড়িষ্যা উপকূলে আছড়ে পড়বে । পশ্চিমবঙ্গের গাঙ্গেয় জেলাগুলিতে শনিবার থেকে সোমবার পর্যন্ত বৃষ্টিপাত চলবে ।

ইতিমধ্যেই দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় গুলিতে হাওয়া দপ্তর তরফ থেকে সর্তকতা জারি করা হয়েছে। ভারী বৃষ্টিপাতে সাথে সাথে চলবে প্রবল ঝড়ো হাওয়া। শনিবার থেকেই আবহাওয়া দপ্তর এর তরফ থেকে পূর্ব মেদিনীপুরে কমলা সর্তকতা জারি করা হয়েছে। পূর্ব মেদিনীপুরের ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। পূর্ব মেদিনীপুর ছাড়াও পশ্চিম মেদিনীপুর, উত্তর এবং দক্ষিণ ২৪পরগনা, ঝাড়গ্রাম , হাওড়া ইত্যাদি জেলাগুলিতেও ভারী বৃষ্টিপাত এবং ঝড়ো হাওয়া চলবে। বৃষ্টিপাতের পরিমাণ ৭ থেকে ১১ সেন্টিমিটার পর্যন্ত হতে পারে। এসমস্ত জেলাগুলিতে ঝড়ের গতিবেগ থাকবে ঘণ্টায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার।

৫ ডিসেম্বর রবিবার দক্ষিণবঙ্গের বিভিন্ন জেলায় গুলিতে ভারী থেকে অতি ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। কমলা এবং হলুদ সর্তকতা জারি করা হয়েছে। পূর্ব মেদিনীপুর, পশ্চিম মেদিনীপুর দুই ২৪ পরগনা ,হাওড়া ,কলকাতা এবং কলকাতার বিভিন্ন জেলাগুলিতে এসমস্ত জেলাগুলিতে ঘণ্টায় ৩০ থেকে ৪০ কিলোমিটার ঝড়ো হাওয়া বইবে।

শনিবার এবং রবিবার ভারী থেকে অতি ভারী বর্ষণের সম্ভাবনাও রয়েছে। জেলাগুলিতে এই সমস্ত জেলা গুলি ছাড়াও পুরুলিয়া ,বাঁকুড়া, হুগলি ,নদীয়া ,বীরভূম, মুর্শিদাবাদ ,পূর্ব পশ্চিম বর্ধমান, মালদা তেও ভারী বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে। এর জন্য আবহাওয়া দপ্তরের তরফ থেকে এই জেলাগুলিতে হলুদ সর্তকতা জারি করা হয়েছে। এই সমস্ত জেলাগুলিতে ৭ থেকে ২০ সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।