সরকারি সম্পত্তি ভাঙচুরে CAA বিক্ষোভকারীদের পাল্টা 14 লাখ টাকার নোটিশ যোগী সরকারের…

যখন থেকে কেন্দ্র সরকার নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে ঘোষণা করছেন তখন থেকেই দেশজুড়ে শুরু হয়েছে আন্দোলন-বিক্ষোভের,এমনকি রাজ্যেও বিভিন্ন জায়গায় দেখা দিয়েছে একাধিক বিক্ষোভ।
বর্তমানে সারা দেশজুড়ে এখন একটি কথা CAA এবং NRC। CAA এবং NRC নিয়ে বিক্ষোভে উত্তাল সারাদেশ। নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল যেদিন থেকে আইনে পরিণত হয়েছে সেই দিন থেকে লোকের মধ্যে নানান ধরনের ভয় কাজ করছে।

এমনকি অনেক মানুষ এই নাগরিকত্ব আইনের বিরোধিতা করতে রাস্তায় নেমে বিক্ষোভ শুরু করেছে। আবার অনেকে তো সরকারি সম্পত্তি ধ্বংস করতে শুরু করেছে এই আইনের বিরোধিতা করতে।তবে এবার উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ এইসব বিক্ষোভকারীদের একহাত নিলেন, তিনি আগেই হুমকি দিয়েছিলেন বিক্ষোভকারীদের বলেছিলেন এই বিক্ষোভের জেরে যদি কোন সরকারি সম্পত্তি নষ্ট হয় তাহলে সেই বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে নেওয়া হবে ব্যবস্থা। এবার এ বিষয়ে উপযুক্ত ব্যবস্থা নিল রামপুর প্রশাসন। এবার জেলা প্রশাসন বিভিন্ন ধরনের সরকারি সম্পত্তি ধ্বংসের জন্য জেলার 28 জনকে চিহ্নিত করেছে।আর এই সনাক্তকরণ হওয়ার পরই নোটিশ দিয়ে ওই 28 জনের কাছ থেকে 14.86লাখ টাকার ক্ষতিপূরণ আদায় করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।আরো বলে রাখি এই ধ্বংস হওয়া সরকারি সম্পত্তির মধ্যে রয়েছে 14,86500 টাকার পুলিশ জিপ, 65 হাজার টাকার পুলিশ বাইক, কোতোয়ালি থানার পুলিশের 90 হাজার টাকার বাইক,ওয়ারলেস সেট, হুটার, লাউডস্পিকার, 10 টি লাঠি, 3 টি হেলমেট, 3 টি বডি আর্মার।

সংবাদমাধ্যমকে এ বিষয়ে রামপুরের জেলা প্রশাসক এর তরফ থেকে জানানো হয়েছে হাঙ্গামায় যুক্ত  থাকার জন্যই এই 28 জনকে মূলত চিহ্নিত করা হয়েছে। এই 28 জনের বিরুদ্ধে এই হামলায় যুক্ত থাকার অভিযুক্ত প্রমাণ দিয়েছে পুলিশ। এমন কী তাদের বিরুদ্ধে এক সপ্তার মধ্যে ওঠা অভিযোগের জবাব দিতে নির্দেশ দেয়া হয়েছে।আর যদি তা না হয় তাহলে এই অভিযুক্তদের কাছ থেকে ক্ষতিপূরণের আদায়ের প্রক্রিয়া শুরু করা হবে। শুধু তাই নয় উত্তর প্রদেশের বিভিন্ন জায়গায় হাঙ্গামা বাধানোর অভিযোগে সেখানকার পপুলার ফ্রন্টের রাজ্য প্রধান ও 16 জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে একথা রাজ্য প্রশাসনের তরফ থেকে জানানো হয়েছে।