বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় ভারতে দুর্বল করোনা ভাইরাস, দাবি মার্কিন গবেষকদের

এই মুহূর্তে গোটা বিশ্ব জুড়ে করোনা ভাইরাসের ত্রাস। বিশ্বের লক্ষ লক্ষ মানুষের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে এই মরণ ভাইরাস COVID-19‌। তবে এই ভাইরাসের সবচেয়ে বড় সমস্যা হল চরিত্র বদলানোর ক্ষমতা তাই এতদিন সময় পেরিয়ে যাবার পরও এখনো পর্যন্ত এর কোন প্রতিষেধক আবিষ্কার করা যায়নি।তবে এই বিষয়ে গবেষকদের মতামত আলাদা তারা জানাচ্ছেন পৃথিবীর সব প্রান্তে এই করোনা সমানভাবে বিপদজনক পরিস্থিতি তৈরি করছে না, কোথাও কোথাও এই মরন ভাইরাস অনেক বেশি শক্তিশালী আবার কোথাও অনেক কম।

আর এবার যে তথ্য বেরিয়ে আসছে সেখানে জানা যাচ্ছে বিশ্বের অন্যান্য দেশের তুলনায় এই মরন ভাইরাস করোনার ক্ষমতা ভারতের দক্ষিণ এশিয়ায় অনেকটা কম। আর এমনটাই মনে করছেন “আমেরিকার ন্যাশনাল অ্যাক্যাডেমি অফ সাইন্স (National academy of Science)।এই আমেরিকান গবেষকদের দাবি, ভারতসহ দক্ষিণ এবং দক্ষিণ পশ্চিম এশিয়ায় করোনা ভাইরাস ছড়িয়েছে তবে সেটি ইউরোপ বা অন্যান্য দেশের মতো এতটা মারাত্মক নয়।আর এর মারণ ক্ষমতা অন্যান্য সব করোনা টাইপের তুলনায় অনেক কম।

এই মার্কিন সংস্থার দাবি তারা বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে এই করোনার নমুনা সংগ্রহ করে সেগুলি নিয়ে পর্যবেক্ষণ করেছেন এবং তারা গবেষণার ভিত্তিতে তিনটি উপজাতিতে ভাগ করেছেন এই মরন ভাইরাস করোনা কে। তারা এই মরণ ভাইরাস Covid-19 কে যথাক্রমে A,B,C অনুযায়ী ভাগ করেছেন যাদের মধ্যে তারা B পর্যায় করোনাভাইরাস কে A এবং C এর তুলনায় অনেকটা বেশি দুর্বল মনে করছেন। এর পাশাপাশি এই মার্কিন গবেষকদের দাবি ভারতের দক্ষিণ এশিয়া এবং দক্ষিণ-পশ্চিম এশিয়ার যে কোন উপজাতিটি ছড়িয়ে পড়েছে সেটি হল B পর্যায়ে করোনা উপজাতিটি তাই অন্যান্য দেশের করোনার তুলনায় এর মারণ ক্ষমতা কম।

এর পাশাপাশি এই ন্যাশনাল একাডেমি অব সায়েন্সের দাবি আমেরিকা এবং ইউরোপের বিভিন্ন যে দেশগুলো রয়েছে সেখানে মূলত A এবং C ক্যাটাগরি করোনা ভাইরাসের উপজাতি টি ছড়িয়েছে যার ফলে এই এলাকাগুলিতে সংক্রমণ এবং মৃত্যু অনেক বেশি। তাই এই দেশগুলি তুলনায় অনেক ভালো জায়গায় রয়েছে ভারতসহ দক্ষিণ এবং পশ্চিম এশিয়া।তবে এর পাশাপাশি এই মার্কিন সংস্থার দাবি এই ভাইরাসের ক্ষমতার খানিকটা দুর্বল হলেও এ নিয়ে নিশ্চিন্ত হবার জায়গা নেই কারণ ভারত হচ্ছে জনবহুল দেশ, তাই কোন প্রকারে সামাজিক দূরত্ব বিধি লংঘন করা যাবে না এমনটাই দাবি সেই সংস্থার।