27 শে এপ্রিল ফের ভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে বৈঠকে বসবেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, নেওয়া হবে আগামী পরিকল্পনা

আরও একবার প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদী দেশজুড়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ মোকাবেলার পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে এবং এ বিষয়ে পর্যালোচনা করতে মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে বৈঠকে বসতে চলেছেন। আবারো ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আয়োজিত হবে এই বৈঠকের, আগামী 27 শে এপ্রিল সোমবার দিন সকাল দশটায় ভিডিও কনফারেন্সে রাজ্যের বিভিন্ন মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে পর্যালোচনায় বসতে চলেছেন তৃতীয়বারের জন্য প্রধানমন্ত্রী। যেমনটা আমরা জানি বর্তমানে দ্বিতীয় দফার যে লকডাউনটি চলছে সেটি শেষ হবার মেয়াদ রয়েছে আগামী 3 ই মে, তাই এই লকডাউন মেয়াদ শেষ হয়ে যাওয়ার পর তা আরও বাড়ানো হবে কিনা।

তাছাড়া বর্তমানে রাজ্যগুলির পরিস্থিতি কেমন হয়েছে সেই নিয়ে বৈঠকে আলোচনা করা হতে পারে বলে মনে করছেন পর্যবেক্ষকরা। এর পাশাপাশি এই বৈঠকে আলোচ্য বিষয় থাকতে পারে 20 এপ্রিলের পর থেকে যে রাজ্যগুলিতে কিছু কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দেওয়া হয়েছে সেখানে বর্তমানে করোনা সংক্রমণ কেমন রয়েছে সে বিষয়েও। দ্বিতীয় দফার লকডাউন মেয়াদ শেষ হচ্ছে আগামী 3 ই মে তাই এই লকডাউকে আরও বাড়ানোর প্রয়োজন আছে কিনা রাজ্যগুলিতে তা নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীদের মতামত জানতে পারেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

এর আগে যেমন 11 ই এপ্রিল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দ্বিতীয় দফার মুখ্যমন্ত্রীর বৈঠক করেছিলেন সেখানে এই লকডাউনের মেয়াদকে বাড়ানোর কথা জানিয়েছিলেন বিভিন্ন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীরা। তাই এবার যদি লকডাউন না বাড়ানো হয় তাহলে কোন পথে এগানো হবে তা নিয়ে আলোচনার সম্ভাবনা রয়েছে এই বৈঠকে। এর পাশাপাশি যে এলাকা গুলিতে করোনা সংক্রমণ অত্যাধিক হারে ছড়িয়ে পড়েছে সেগুলি নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা হতে পারে বলে মনে করছেন রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকরা।

আপনাদের জানিয়ে দিই, করোনা ভাইরাসের মামলা দ্রুত গতিতে বৃদ্ধি পাচ্ছে ভারতে। এখনো পর্যন্ত দেশে করোনার মোট 21 হাজার 452 জন রোগীর সন্ধান পাওয়া গেছে। আর 681 জনের মৃত্যু হয়েছে। বিগত 24 ঘণ্টায় 55 জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনা মহামারী বিপদের কথা মাথায় রেখে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী অ্যাকশন মুডে আছেন। তিনি নিজের মন্ত্রী আর রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে আলোচনা করেন আর সমস্ত রকম তথ্য জানেন। লকডাউনের মধ্যেও মহারাষ্ট্র, গুজরাত, রাজস্থান, উত্তরপ্রদেশের মতো কিছু রাজ্যে সংক্রমণ বৃদ্ধির হার যথেষ্ট উদ্বেগজনক।

তবে এক্ষেত্রে অনেক রাজ্যের পরিস্থিতিই ভাল। সেই রাজ্যগুলিতে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যাও কমে আসছে। আবার সারা দেশেই টেস্ট কিটের অভাবের অভিযোগ উঠেছে। ফলে টেস্টের সংখ্যা কম হচ্ছে বলে অভিযোগ রয়েছে। তবে 27 এপ্রিল সারা দেশে সংক্রমণ এবং বৃদ্ধির হারের চিত্রটা আরও কিছুটা স্পষ্ট হবে বলেও মনে করা হচ্ছে। ফলে ওই সময় এই নিয়েও প্রধানমন্ত্রী আলোচনা করবেন মুখ্যমন্ত্রীদের সঙ্গে।

Related Articles

Close