সাবধান! করোনা ভাইরাসের নামে চলছে প্রতারণা, চোখের নিমেষে খালি হয়ে যাচ্ছে ব্যাঙ্কের সমস্ত টাকা…

বর্তমানে সারা বিশ্বে এখন একটাই আতঙ্কের নাম করোনা ভাইরাস। ধীরে ধীরে বিশ্বের সমস্ত দেশে থাবা বসাচ্ছে এই মরণ ভাইরাস। বহু মানুষ এই ভাইরাসের জেরে মারা গেছেন এবং প্রায় লক্ষাধিক মানুষ আক্রান্ত রয়েছেন এই ভাইরাসে। এই ভাইরাস থেকে যতটা সম্ভব দূরে থাকা যায় তার জন্য বিভিন্ন ধরনের পরামর্শ মেনে চলছেন সাধারণ মানুষেরা। N95 মাক্স পরা থেকে শুরু করে সাবান দিয়ে নিয়মিত হাত ধোয়া সমস্ত কিছু মেনে চলছেন সাধারণ মানুষেরা।

এখনো পর্যন্ত ভারতে করোনা ভাইরাসের 73 জন রোগী পাওয়া গিয়েছে। যে কারণে সরকারও এখন কিছু বড়ো সিদ্ধান্ত নিচ্ছে। এখন ভারত সরকারও বিদেশ থেকে আসা মানুষদের ভিসা দেওয়া বন্ধ করে দিয়েছে। যাতে এই ভাইরাসকে আটকানো যেতে পারে। সবার থেকে বেশি ভারতের কেরালাতে এই ভাইরাসের জেরে রোগীর সংখ্যা রয়েছে 17 জন, তার পরে নাম রয়েছে হরিয়ানার যেখানে এই ভাইরাসে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা 14 জন, পরে রয়েছে মহারাষ্ট্র ও উত্তর প্রদেশের নাম যেখানে এই ভাইরাসের জেরে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা 11 জন করে।

তবে মানুষের মধ্যে এই ভয় কে কাজে লাগিয়ে এখন হ্যাকাররা হাতিয়ে নিচ্ছে লক্ষ লক্ষ টাকা। হয়তো বিষয়টা আপনি ঠিক বুঝলেন না, তাহলে বুঝিয়ে বলা যাক যেমনটা আমরা জানি এই ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা দিন দিন বেড়ে চলেছে ফলে বিভিন্ন জায়গায় সতর্কবার্তা দেওয়া হচ্ছে তা নিয়ে, তার দরুনই এই বিষয় সম্পর্কে সচেতন করতে আপনার মোবাইলে ফেসবুক মেসেঞ্জারে কোন লিংক আসলে সাইবার নিরাপত্তা তরফ থেকে এই বিষয়ে সতর্ক থাকতে বলা হচ্ছে।

কারণ হ্যাকাররা এখন এই ভয় কে কাজে লাগিয়ে আপনার মোবাইলের লিংক পাঠিয়ে ব্যাংকের টাকা আত্মসাৎ করে ফেলবে।কারণ এই লিঙ্কে ক্লিক করলে আপনি প্রতারকদের ফাঁদে পড়ে যাবেন আর ফাঁকা হয়ে যাবে আপনার ব্যাংকের সমস্ত টাকা। তাই করোনা ভাইরাস বিষয়ে যদি কোন লিংক পাঠানো হয় আপনার মোবাইলে, তাহলে সেটিকে খোলার আগে সতর্ক থাকুন, প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা যাচ্ছে বর্তমানে ফেসবুক মেসেঞ্জারে সাইবার দুর্বত্তরা কোন ভাইরাসের সচেতন ও তার নামে বিভিন্ন ম্যালওয়্যার ছড়াচ্ছে।

যার মাধ্যমে আপনার ব্যাংকের ক্লোন বা নকল অ্যাকাউন্ট তৈরি হয়ে যাচ্ছে সেইসব হ্যাকারদের কাছে এমনটাই জানিয়েছে সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞরা। এই মুহূর্তে করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করতে সরকারের তরফ থেকে বিভিন্ন মেসেজ পাঠানো হচ্ছে এর পাশাপাশি প্রতারকরা সেই ভয় কে কাজে লাগিয়ে ভুয়া ম্যাসেজ পাঠাচ্ছে।আর একবার যদি আপনি এই প্রতারকদের মেসেজ লিংকে ক্লিক করে ফেলেন তাহলে আপনি এই প্রতারকদের ফাঁদে পড়ে যাবেন এবং মুহুর্তের মধ্যে ফাঁকা হয়ে যাবে আপনার ব্যাংকের টাকা।

তাই সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের তরফ থেকে এই বিষয়ে সতর্ক থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে,বিষয়টি নিয়ে সচেতন থাকতে যে জিনিস গুলি আপনাকে মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে সাইবার নিরাপত্তা বিশেষজ্ঞদের তরফ থেকে সেগুলি নিম্নরূপ. প্রথমত, কোন অপরিচিত কারো বন্ধুত্বের অনুরোধ গ্রহণ করবেন না। দ্বিতীয়তঃ সন্দেহজনক কোন লিংকে ক্লিক করতে নিষেধ করা হচ্ছে। এমনকি আপনার কোন ঘনিষ্ট বন্ধুর পাঠানো লিংক হলেও তাতে ক্লিক করবেন না।

আর তৃতীয়তঃ যে বিষয়টি আপনাদের সকলের মাথায় রাখতে হবে সেটি হল না বুঝে এই করোনা ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন মূলক কোন পোস্ট বা কোন লিংক শেয়ার করবেন না কারণ এই পোষ্টের মধ্যে ম্যালওয়্যার থাকার সম্ভাবনা থাকতে পারে,ফলে যাকে পাঠাচ্ছেন সেই যদি না বুঝে ক্লিক করে ফেলে তবে সেও বিপদে পড়তে পারে এবং খালি হয়ে যাবে তার ব্যাংক অ্যাকাউন্টের টাকা।

Related Articles

Close