ATM থেকে ছড়াচ্ছে করোনা ভাইরাস, তাহলে এবার কীভাবে তুলবেন ATM থেকে টাকা? জারি হল গাইডলাইন

গোটা বিশ্ব জুড়ে চলছে মরণ ভাইরাস করোনার তাণ্ডব, আর এই মরণ ভাইরাস করোনার জেরে ভারতে ইতিমধ্যে প্রাণ গিয়েছে 780 জনের আর ভারতে এই মরণ ভাইরাস করোনার জেরে আক্রান্তের সংখ্যা পৌঁছেছে 24532 জন যাদের মধ্যে এখনো পর্যন্ত অ্যাক্টিভ কেস রয়েছে 18254 টি। তাই এই মরণ ভাইরাস করোনার জেরে সাধারণ মানুষের মনে একটা আতঙ্ক তৈরি হয়েছে। তবে এরই মধ্যে বেরিয়ে এলো আরো এক অন্য আশঙ্কা সম্প্রতি গুজরাটের বদোদরায় তিনজন জওয়ানের শরীরে করোনা আক্রান্তের খবর সামনে এসেছে।

প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা যাচ্ছে এই তিনজন বদোদরায় অবস্থিত একটি এটিএম থেকে টাকা তুলে ছিলেন একই দিনে আর তার পরবর্তীকালে এই তিনজনের দেহে করোনা পজিটিভ জীবাণু ধরা পড়ে।তাই প্রাথমিকভাবে এখন অনুমান করা হচ্ছে হয়তো ATM থেকে টাকা তোলার সময় কোনভাবে এই তিনজনের শরীরে করোনা ভাইরাস প্রবেশ করেছে। অন্যদিকে এই তিনজন জওয়ানের সংস্পর্শে থাকা আরো 28 জন ব্যক্তিকে ইতিমধ্যে কোয়ারেন্টাইন এ পাঠানো হয়েছে। তবে এখন প্রশ্ন হচ্ছে করোনার ভয়ে কী এবার এটিএম থেকে তোলা যাবে না টাকা? সেই বিষয়ে সম্প্রতি ইন্ডিয়ান ব্যাঙ্ক অ্যাসোসিয়েশন করোনাভাইরাস মোকাবেলা কীভাবে ব্যাংকে কাজ করবেন এই বিষয়ে একটি গাইডলাইন জারি করেছে। আর সেই গাইডলাইন ঠিকমত পালন করলে করোনা ভাইরাসের হাত থেকে রক্ষা পেতে পারেন। এই গাইডলাইনে যে বিষয়গুলি কে উল্লেখ করা হয়েছে সেগুলি হল নিম্নরূপ…

1) প্রথমত এই গাইডলাইনের শুরুতেই বলা হয়েছে আপনার ব্যাংকের কাজ যতটা পারবেন অনলাইনের মাধ্যমে করার চেষ্টা করবেন আপাতত ব্যাংকের যেসব কাজগুলি রয়েছে সেগুলি অনলাইন ব্যাংকিংয়ের সাহায্য করতে পারবেন। চেষ্টা করবেন ব্যাংকে না দিয়ে যতটা সম্ভব অনলাইনের মাধ্যমে কাজটিকে সলভ করে ফেলার।

2) আর দ্বিতীয়তঃ যদি আপনার আগে কেউ এটিএম ব্যবহার করে থাকে তাহলে সেই এটিএম এর ভিতরে ঢুকবেন না।

3) ATM- এ প্রবেশ করার আগে হাত গুলিতে স্যানিটাইজার লাগান এবং বেরিয়ে ও সেই একই পদ্ধতি অবলম্বন করুন। এর পাশাপাশি চেষ্টা করবেন যতটা সম্ভব এটিএমের যে জায়গাগুলি সকলে হাত লাগায় সেইগুলি থেকে দূরে থাকার।

4) এর পাশাপাশি ATM দাঁড়িয়ে যদি আপনার হাঁচি পায় তাহলে চেষ্টা করবেন মুখ ঢেকে রাখার।

5) এই মুহূর্তে যদি আপনি যদি ফ্লু-তে ভুগছেন তাহলে এটিএম যাওয়ার দরকার নেই।

6) অবশ্যই এ কথা মনে রাখবেন এটিএম থেকে বেরোনোর পর নিজের হাত সেনিটাইজার করার কথা।

7) এর পাশাপাশি এটিএমে টাকা তোলার জন্য লাইন দেওয়ার সময় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখবেন পরস্পরের থেকে এবং নিজের হাত নাকে, মুখে দেবেন না।

8) আর আপনার ব্যবহার করা টিসু বা মাস্ক এটিএম এর ভিতরে ফেলে আসবেন না

9) কোন কিছু কেনার সময় পেমেন্ট দিতে হলে অনলাইনে যেসব পেমেন্ট অপশন গুলো আছে সেগুলিকে বাছুন, হাতে করে টাকা দেবেন না।

উপরে দিয়ে থাকা এই গাইডলাইন গুলি অবশ্যই ফলো করুন তাহলে করোনাভাইরাস অন্তত আপনার শরীরে ঢুকতে পারবে না। এর পাশাপাশি করোনার হাত থেকে বাঁচতে মাস্ক ব্যবহার করুন ,সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখুন, সতর্ক থাকুন, সাবধানে থাকুন।

Related Articles

Close