দিন দিন চরিত্র বদলাছে করোনা ভাইরাস! নতুন উপসর্গের কথা উল্লেখ করে নয়া গাইডলাইন জারি কেন্দ্রের..

করোনার উপসর্গ হিসেবে প্রথমে জানা গিয়েছিল জ্বর সর্দি- কাশি এসব হবে কিন্তু যত দিন যাচ্ছে তত যেন চরিত্র বদলাতে শুরু করেছে এই মরণ ভাইরাস COVID-19। যত দিন যাচ্ছে তত সামনে আসছে একের পর এক নতুন উপসর্গ এই ভাইরাসের। তবে শুধু তাই নয় এমনকি এই রোগের উপসর্গ বিহীন রোগীও দেখা যাচ্ছে একাধিক ক্ষেত্রে। তবে আবারো সর্তকতা অবলম্বনে গতকাল শনিবার দিন নতুন করে এই মরণ ভাইরাসের জেরে গাইডলাইন প্রকাশে আনা হয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রকের তরফ থেকে।

যেখানে যুক্ত করা হয়েছে নয়’টি নতুন উপসর্গ এই গাইডলাইনে। আর এই গাইডলাইনে জানানো হয়েছে হঠাৎ করে ঘ্রাণ ও স্বাদ শক্তি হারিয়ে ফেলার উপশম করোনার নতুন উপসর্গ হতে পারে।তার পাশাপাশি সর্দি-কাশি-জ্বর, দুর্বলতা, প্রশ্বাসের সময় সমস্যা, গলা জ্বালা, এবং ডায়রিয়া করোনা সংক্রমনের উপসর্গ। সেই গাইডলাইনে বলা সংক্রমণ একমাত্র দুটি মানুষের ঘনিষ্ঠতা থেকে ছড়িয়ে পড়েছে। এক্ষেত্রে হাঁচি বা কফির সঙ্গে বেরোনো ড্রপলেট এই সংক্রমণ হার বাড়াচ্ছে।

এক্ষেত্রে জানানো হয়েছে কোনভাবে যদি কারো মুখ থেকে ড্রপলেট মাটিতে পড়ে তার সঙ্গে ভাইরাসও বেরোচ্ছে। ফলে বায়ুমণ্ডলের বেশ কিছুক্ষণ সক্রিয় থাকছে এই ভাইরাস যার ফলে একজন সুস্থ মানুষ যখন সে মাটি স্পর্শ করে তার চোখ, নাক, মুখে হাত দিচ্ছে তখন সংক্রমিত হয়ে যাচ্ছেন।এই উল্লেখিত গাইডলাইনে বলা হয়েছে 60 বছরের উপরে যারা রয়েছেন তাদের জন্য ক্রমশ বিপদজনক এটি। এর পাশাপাশি যারা ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ ও হৃদরোগের সমস্যায় ভুগছেন তাদের ক্ষেত্রেও এই সংক্রমণ হওয়ার সম্ভাবনা অনেকখানি বেশি রয়েছে। ‌

অন্যদিকে আগামী দিনে কীভাবে দেশে করোনা সংক্রমণকে রুখা যায় তা খতিয়ে দেখতে আবারো গুরুত্বপূর্ণ বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী। এই বৈঠক সম্পন্ন হবে দুই দফার আগামী 16 এবং 17 ই জুন রাখা হয়েছে এ বৈঠকের তারিখ। এর আগে গত শনিবার দিন প্রধানমন্ত্রী একটি বৈঠক সম্পন্ন করেছেন যেখানে এই বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন, ও প্রিন্সিপাল সেক্রেটারি সহ আরো অনেকেই।এই বৈঠকের আলোচ্য বিষয় ছিল দিল্লিসহ একাধিক রাজ্যের যেভাবে বাড়ছে করোনা সংক্রমনের হার সেই বিষয় নিয়ে।

যেমনটা আমরা জানি এই মুহূর্তে ভারতে করোনা সংক্রমনের হার ইতিমধ্যেই পৌঁছে গেছে তিন লাখেরও বেশি। আর এই পরিস্থিতি সামাল দিতে আবারো রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে বৈঠকে বসতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, যার দরুন আগামী সপ্তাহে দুই দফায় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের সাথে বৈঠক সম্পন্ন করতে চলেছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী।

Related Articles

Close