বাংলাদেশকে করোনা টিকা উপহার ভারতের, ভারত থেকে ঢাকায় পৌঁছাল করোনা টিকা কোভিশিল্ড

বৃহস্পতিবার বেলায় ভারত থেকে ঢাকায় (Dhaka) পৌঁছল কোভিড ১৯ এর ভ্যাকসিন  কোভিশিল্ড।প্রথম দফায় তুলে দেওয়া হল প্রতিবেশি বাংলাদেশের হাতে পুণের সেরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি করোনা টিকার ২০ লক্ষ ডোজ উপহার হিসেবে তুলে দেওয়া হল৷  এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ বিমানে আজ বেলা ১১ টায়  ঢাকার শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছেছে   ভ্যাকসিনের প্রথম দফার ডোজগুলি। এর পরবর্তী সময় ঢাকা পাবে কোভিশিল্ডের আরও ১৫ লক্ষ ডোজ।

 

বাংলাদেশে টিকা পৌঁছে যাওয়ার পর ভারতের বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকর টুইটে লেখেন, “করোনা টিকা ঢাকায় পৌঁছেছে। এই ভ্যাকসিন মৈত্রী বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্কের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার পুনরায় প্রমাণ করল। “বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় মুম্বইয়ের ছত্রপতি শিবাজি আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে কোভিশিল্ড এর  ২০ লক্ষ ডোজ নিয়ে বাংলাদেশের উদ্দেশে রওনা হয় এয়ার ইন্ডিয়ার বিশেষ বিমান।  ঢাকার শাহজালাল বিমানবন্দরে অবতরণ করে বিমানটি৷ এরপর দ্রুত সময়ে ফর্কলিফটের (পণ্যসামগ্রী ওঠানামায় ব্যবহৃত বিশেষ যন্ত্র) মাধ্যমে টিকার ডোজ বিমান থেকে নামানো হয়।

তারপর শীতাতপ নিয়ন্ত্রিত ট্রাকে করে মাত্র ৩০ মিনিটের মধ্যে তেজগাঁও শিল্পাঞ্চলের ইপিআই সংরক্ষণাগারে পৌঁছে দেওয়া হয়। বাংলাদেশে  কোভিড ভ্যাকসিনের প্রতিটি ডোজ এর ডাম মাত্র ৪ মার্কিন ডলার জানিয়েছে সেরাম ইনস্টিটিউট। বাংলাদেশি মুদ্রায় একেকটি ডোজের দাম হবে প্রায় ৩৪০ টাকা। তবে  গড়ে সম্ভবত ৩ মার্কিন ডলার দামে বাংলাদেশ সরকার ভ্যাকসিন পেতে পারে এমনটাও জানা যাচ্ছে ।

IPL 2021 এর কোনদলে কারা খেলছে আর কারা বাদ গেল, দেখে নিন আটটি দলের দেখুন সম্পূর্ণ তালিকা

ঢাকার রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন ‘পদ্মা’য় বাংলাদেশের বিদেশমন্ত্রী ও স্বাস্থ্যমন্ত্রীর হাতে উপহার স্বরূপ এই টিকা তুলে দিয়েছেন ঢাকায় নিযুক্ত ভারতের হাইকমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামী। এছাড়া বাংলাদেশ সরকারের সঙ্গে ভারতের সেরাম ইনস্টিটিউট ও বেক্সিমকো ফার্মার চুক্তি হয়েছে। আপাতত অনলাইনে নাম নথিভুক্ত করলে তবেই টিকা পাওয়া যাবে৷ জানুয়ারির শেষে রাজধানীর চারটি হাসপাতালে ড্রাই রান শুরু হবে। ফেব্রুয়ারির প্রথম সপ্তাহে দেশব্যাপী টিকাদান শুরুর প্রস্তুতি নিচ্ছে স্বাস্থ্য বিভাগ। বেসরকারি প্রতিষ্ঠানকে এখনও টিকা দেওয়ার অনুমতি দেওয়া হয়নি৷

স্বাস্থ্যসচিব আবদুল মান্নান বলেছেন, “এ মাসের ২৭ বা ২৮ তারিখে কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে টিকা দেওয়া শুরু হতে পারে। প্রধানমন্ত্রী অনুষ্ঠানে ভারচুয়ালি যোগ দিতে পারেন। এই দিন প্রথম সারির করোনাযোদ্ধা অর্থাৎ স্বাস্থ্যকর্মী, শিক্ষক, সাংবাদিক, পুলিশ-সহ বিভিন্ন পেশার সঙ্গে যুক্ত ২০ থেকে ২৫ জনকে টিকা দেওয়া হবে। তবে সম্পূর্ণ পরিকল্পনা এখনও চূড়ান্ত হয়নি।

 

” তিনি আরও জানিয়েছেন, “বেক্সিমকোর মাধ্যমে আসা টিকা ৮ ফেব্রুয়ারির আগে সারা দেশের জেলা ও উপজেলা পর্যায়ে পৌঁছে দেওয়া হবে। তারপর দেশব্যাপী টিকাদান কর্মসূচি শুরু হবে।” ১৮ বছরের কম বয়সী ও গর্ভবতী মহিলা-সহ মোট ৭ কোটি মানুষকে  আপাতত টিকা দেওয়া হবে না বলেও জানা যাচ্ছে