মাথায় হাত আমজনতার, করোনা আবহে লাগাতার মূল্যবৃদ্ধি, কলকাতায় পেট্রল-ডিজেলের দামে নয়া রেকর্ড

করোনা ভাইরাস এর দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ায় দেশের অবস্থা প্রায় বেহাল অধিকাংশ শহরে লকডাউন জারি করা হয়েছে।  এর জেরে বেশ ভালো সংখ্যক মানুষের বেতন কমেছে কাজ হারিয়েছে অনেক মানুষ। কিন্তু এসবের মধ্যেও লাগাতার বেড়ে চলেছে জ্বালানির দাম।

মঙ্গলবার ফের বেশ কয়েকটি শহরে বেড়েছে জ্বালানির দাম। শহর কলকাতায় পেট্রোলের দাম চলতি বছরের মধ্যে সর্বোচ্চ সীমায় পৌঁছেছে।  রাষ্ট্রায়ত্ত সংস্থা গুলির বিজ্ঞপ্তি অনুসারে মঙ্গলবার কলকাতায় লিটারপ্রতি 26 পয়সা বেড়েছে।  পেট্রোলের নতুন দাম 91 টাকা 92 পয়সা  প্রতি লিটার পেট্রোল।  ডিজেলের দাম লিটার প্রতি 30 পয়সা বেড়ে হয়েছে।  ৮৫ টাকা ২০ পয়সা ডিজেলের দাম লিটার প্রতি৷  নাভিশ্বাস উঠেছে মধ্যবিত্ত বাঙালির হেঁশেল এ।  প্রতিনিয়ত বেড়ে চলা জ্বালানির দাম এর জন্য৷

বড় খবরঃ মমতার তৃতীয় মন্ত্রিসভায় বড়সড় চমক! নতুনদের ঠাঁই দিতে গিয়ে বাদ বেশ কয়েকজন প্রাক্তন মন্ত্রী, দেখে নিন সম্পূর্ণ তালিকা

করোনা  আবহে জ্বালানি তেলের চাহিদা অনেকটাই কমে গেছে।  এর ফলে অপরিশোধিত তেলের দাম কমছে।  গতবছরও করোনার সময় লকডাউন চলাকালীন পেট্রোল-ডিজেলের আমদানি কমিয়ে ফেলেছিল ভারত।  এবছরও সেই ঘটনারই পুনরাবৃত্তি ঘটছে৷ পূর্ণ বা  আংশিক লকডাউন এর জেরে একাধিক শহরে চাহিদা কমছে পেট্রোল-ডিজেলের। তবুও পেট্রোল-ডিজেলের দাম আকাশছোঁয়া।

কেন্দ্র চাইছে জ্বালানি থেকে রাজস্ব ঘাটতি পূরণ করতে।এর ফলে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বিপুল হারে বাড়তে পারে,  এখন সেটাই চিন্তা জনসাধারণের।একদিকে মূল্যবৃদ্ধি অন্যদিকে পেট্রোল-ডিজেলের দাম বৃদ্ধি তারপর করোনা আবহে দিনের পর দিন লকডাউন মানুষের হাতে কাজ নেই সব মিলিয়ে জীবনযাপন করা এখন খুবই কঠিন হয়ে উঠছে আম জনতার কাছে