ভারতের মধ্যেই রয়েছে মহাদেবের আশ্চর্য এক মন্দির, যেখানে দিনে তিনবার রং বদলায় শিবলিঙ্গের

দিনে তিনবার রং বদলায় এই মন্দিরের শিবলিঙ্গ ভারতের বহু মন্দির কে কেন্দ্র করে রয়েছে নানা রহস্যময় গল্প তেমনই এক রহস্য মন্ডিত মন্দির হল রাজস্থানের অচলেশ্বর মহাদেব মন্দির শিব মন্দিরের শিবলিঙ্গ পূজিত হয় তাই নাকি দিনের বিভিন্ন সময়ে বিভিন্ন রঙে রঙিন হয়ে ওঠে৷

Shiva Temple

রাজস্থানের সিরোহী জেলায় অচলগড় কেল্লার বাইরে এই মন্দির। কথিত আছে, মহাদেবের একটি পায়ের ছাপকে কেন্দ্র করে এই মন্দির গড়ে তোলা হয় আনুমানিক নবম শতকে। চার টনের একটি নন্দীর মূর্তি রয়েছে এই মন্দিরে। মূর্তিটি পঞ্চধাতুর৷ কিংবদন্তি নন্দীর এই মূর্তি মন্দিরের রক্ষক। প্রাচীন কালে কোনও এক মুসলিম শাসক এই মন্দির ভাঙতে চেয়েছিল৷ তখন নন্দী মুখ থেকে বেরিয়ে আসে ঝাঁকে ঝাঁকে মৌমাছি। মৌমাছির আক্রমণে পালিয়ে যায় আক্রমণকারীরা।

 

26 January Republic day তে ভারতে লঞ্চ করবে FAUG, প্রকাশে এল Cinematic Teaser

মন্দিরে রয়েছে একটি স্তূপ। স্থানীয়দের বিশ্বাস এটি নরকের দক্ষিণ দ্বার। মন্দিরের অদূরে পুকুরের পাড়ে রয়েছে তিনটি ধাতব মহিষের মূর্তি যা তিনটি রাক্ষসের প্রতিরূপ। মন্দিরটির সংস্কারসাধন হয়েছে বহুবার। গর্ভগৃহটি সংস্কারের সময় একটি সুড়ঙ্গ আবিষ্কৃত হয়। সুড়ঙ্গের মধ্যে দু’টি কুলুঙ্গিতে দেবী চামুণ্ডার দু’টি মূ্র্তিতে সিঁদুর দেখা যায়৷ যেন সদ্য পূজিতা হয়েছেন দেবী।

কিন্তু এই সুড়ঙ্গপথে কারা পুজো করে যেত দেবীর? সেই প্রশ্নের উত্তর আজও মেলেনি। তবে এই মন্দিরের মূল আকর্ষণ শিবলিঙ্গটি। দিনের বিভিন্ন সময়ে এর রং হয় বিভিন্ন। অন্তত তিন বার রং বদলায় এই শিবলিঙ্গ।

সকাল বেলা লাল, বিকেলে হয় জাফরান, আর রাত্রে এর রং হয় কালো। ভক্তরা গোটা বিষয়টিকেই ঐশ্বরিক লীলা বলেন৷ অগণিত ভক্তের ভিড় হয়৷ বিজ্ঞানীরা বলছেন, মন্দিরের গায়ে যে অজস্র স্ফটিক লাগানো রয়েছে, তাতে দিনের বিভিন্ন সময়ের বিভিন্ন রং-এর সূর্যালোক প্রতিফলিত হয়েই তৈরি হয় এই রং-এর খেলা।