দেশের সেবায় নিযুক্ত হয়ে কাশ্মীরে আজ থেকে টহলদারি শুরু কর্নেল ধোনির..

ক্রিকেটপ্রেমী থেকে শুরু করে সারা ভারতবাসী প্রায় সবাই জানেন যে ভারতের প্রাক্তন অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি এখন দেশের সেবায় নিযুক্ত। ক্রিকেট থেকে কয়েক দিনের জন্য নিজেকে দূরে সরিয়ে আজকে থেকে তিনি নতুন ভূমিকা পালন করছেন। জম্মু ও কাশ্মীরে তিনি টেরিটোরিয়াল আর্মির সাম্মানিক লেফটেন্যান্ট কর্নেল এর দায়িত্ব পালন করবেন। বুধবার অর্থাৎ আজ থেকে তিনি এই দায়িত্ব পালন করবেন। আজ থেকে সীমান্তে টহলদারি দেবেন ভারতের বিশ্বকাপজয়ী অধিনায়ক।

টেরিটোরিয়াল আর্মি সদস্যরা প্রয়োজন পড়লে সেনাবাহিনীকে সাহায্য করতে পারে। ধনী যে দলের সঙ্গে সীমান্তবর্তী এলাকায় টহল দেবেন সেই দলের নাম ‘ভিক্টর ফোর্স’ । যদিও ধনী এখন যুদ্ধ বা অস্ত্রশস্ত্র নিয়ে লড়াইয়ের পর্বে যাবেন না। তবে 15 দিন জম্মু-কাশ্মীর সীমান্তে অন্যান্য সেনাবাহিনী দের মতোই তাকে থাকতে হবে। সোনার পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, টহল এবং পোস্টে ডিউটি করবেন ধোনি।সেনাবাহিনীর সাথে থাকা ধোনির এটা প্রথমবার নয়, এর আগে তিনি সেনার সঙ্গে প্যারাট্রুপার ট্রেনিং করেছিলেন।

উড়ান থেকে লাফিয়ে প্যারাট্রুপারদের পরীক্ষায় পাশ করেছিলেন ভারতীয় ক্রিকেট ইতিহাসের সফল অধিনায়ক। এছাড়াও এক সেনা কর্তা জানিয়েছেন,” এবারে টহলদারি ভূমিকা পালন ট্রেনিং এর একটি অঙ্গ।” তিনি আরও বলেন, ধোনির মত একজন তারকা সেনাবাহিনীর সঙ্গে যুক্ত হয়ে নতুন প্রজন্মকে সেনা বাহিনীতে যোগদান করার জন্য আরো উৎসাহিত করবে। তার সেনাবাহিনীর প্রতি যে কতটা শ্রদ্ধা রয়েছে সেটাও তিনি জানান। প্রসঙ্গত বিশ্বকাপের সময় বিশেষ ফৌজি চিহ্নযুক্ত গ্লাভস পরে মাঠে নেমে বিতর্কের মুখে পড়েছিলেন মহেন্দ্র সিং ধোনি। গ্লাভস থেকে সেই চিহ্ন সরানোর জন্য আইসিসি থেকে বার্তাও আসে। বিশ্ব কাপের মত এতবড় একটা টুর্নামেন্ট এ বিতর্কে না জড়িয়ে গ্লাভস থেকে সেই চিহ্ন সরিয়ে নেন তিনি।

বিশ্বকাপের আগে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ওয়ানডে খেলার সময় রাঁচিতে পুরো ভারতীয় দল ফৌজি টুপি পরে মাঠে নেমেছিলেন। বিশ্বকাপে কিপিং খুব ভালো করলেও অতিরিক্ত মন্থর গতিতে ব্যাটিং করার জন্য তার বিরুদ্ধে নানান অভিযোগ উঠে এসেছে বিশ্বকাপ চলাকালীন। ধোনির পরিবর্তে বিকল্প হিসেবে রিসভ পন্থকে নির্বাচকেরা বেছে নিয়েছেন। সামনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে পন্থকে তিনটি ফরমেটেই ভারতীয় দলে রেখেছেন নির্বাচকেরা। সাম্মানিক কর্নেল হিসেবে ডিউটি শেষ করার পর তার ক্রিকেট জীবন কোন দিকে মোড় নেয় সেটি এখন ক্রিকেটপ্রেমীদের দেখার বিষয়।

এরপরেও কি তিনি খেলা চালিয়ে যাবেন, না অবসর নিয়ে পন্থ কে সমস্ত দায়িত্ব তুলে দেবেন। ধনী ডিউটি শেষ করে বাড়ি না ফেরা পর্যন্ত মোড় কোন দিকে ঘুরবে সেটা এখন কিছুই বলা যাবে না।

Related Articles

Close