নির্বাচনের আগেই পার্শ্বশিক্ষকদের ৩ লক্ষ টাকা সহ বাজেটে একাধিক বড় ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

আজ মুখ্যমন্ত্রীর বাজেট পেশ করার ঠিক আগে থেকে  বিজেপির বিধায়করা বিক্ষোভ দেখাতে থাকে৷ জয় শ্রী রাম স্লোগানও । বিক্ষোভ দেখানো বিজেপি বিধায়কদের বিধানসভার অধ্যক্ষ সতর্ক করেন৷  এরপর বিজেপির বিধায়করা বিধানসভা থেকে ওয়াকআউট করে বেরিয়ে যান। বিধানসভা থেকে ওয়াকআউট করেছিলেন বাম ও কংগ্রেস বিধায়করা। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “আমি ৫ টি রেল বাজেট পেশ করেছি। বাজেটের সময় কেউ কোনও কথা বলে না। বিজেপির সদস্যরা কিছু পারে না জানেও না। ”

রাজ্যের অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্র অসুস্থ থাকায় এবার বাজেট পেশ করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।  বাজেটে বলেন

স্কিল ডেভলপমেন্টে গোটা দেশে পশ্চিমবঙ্গ ১ নম্বরে। দারিদ্র দূরীরকণেও বাংলা ১ নম্বরে।

সাঁওতালি ভাষার জন্য ৫০০ টি স্কুলের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। তার জন্য  ১৫০০ প্যারা টিচার নিয়োগ হবে বলে জানান তিনি।

তপসিলি জাতি/উপজাতিদের মধ্যে ১০০ টি ইংরেজি স্কুলের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী এবং  বরাদ্দ করেন ৫০ কোটি টাকা।

নেপালি, উর্দু ও হিন্দি ভাষার ১০০ টি স্কুল, ৫০০ টি প্যারাটিচারের ঘোষণা করেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

আগামী অর্থবর্ষে মাদ্রাসার জন্য ৫০ কোটি টাকা বরাদ্দের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

নিউটাউন থেকে ইএম বাইপাস পর্যন্ত, রুবি থেকে কালিকাপুর পর্যন্ত, পাইকপাড়া থেকে শিয়ালদহ পর্যন্ত, আমির আলী রোড থেকে গুরুসদয় দত্ত রোড পর্যন্ত, এবং যাদবপুর থেকে প্রিন্স আনোয়ার শাহ রোড পর্যন্ত উড়ালপুলের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

ইতিহাসের পাতায় ঝড় তুলে দিয়েছিল রিহানার ১০ টি অদ্ভুত পোশাকের ছবি, যা আজও সোশ্যাল মিডিয়াতে ভাইরাল

বছরের দুবার করে দুয়ারে কর্মসূচির ঘোষণা করেন মমতা৷

মহামারীর জন্য পরিবহণ ক্ষেত্রে রোড ট্যাক্স মুকুবের ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

পর্যটন শিল্পে ৫০ হাজার থেকে ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত ঋণ দেওয়ার ঘোষণা করেন।

রাজারহাটে একাধিক IT সংস্থাকে জমি দেওয়া হবে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

আগামী দুই বছরের মধ্যে অন্ডাল বিমানবন্দরকে রাজ্যের দ্বিতীয় আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর হিসেবে গড়ে তোলার প্রতিশ্রুতি  দেওয়া হয়৷ সেখানে দেড় কোটি কর্মসংস্থান হবে বলে জানান মুখ্যমন্ত্রী।

আগামী অর্থবর্ষে ২ লক্ষ ৯৯ হাজার ৬৮৮ কোটি টাকা বাজেট বরাদ্দের প্রস্তাব সরকারের।

রাজ্যে ৪৬ হাজার কিমি গ্রামীণ রাস্তা নির্মাণ আর ১০ হাজার কিমির রাস্তার সংস্কার করা হবে৷

পার্শ্বশিক্ষকদের অবসরে ৩ লক্ষা টাকা দেওয়ার কথা জানান মুখ্যমন্ত্রী।
আজাদ হিন্দ স্মারকের জন্য ১০০ কোটি টাকার ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ।