রণক্ষেত্রে পরিণত হল বর্ধমান মেডিক্যাল! ইঁটের আঘাতে আহত হবু ডাক্তার…

NRS-এর ঘটনার প্রতিবাদে কর্মবিরতিকে ঘিরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজ। হাসপাতাল সুপারকে বেধড়ক পেটানোর অভিযোগ উঠল আন্দোলনরত জুনিয়ার ডাক্তারদের বিরুদ্ধে। এ দিকে, রোগীর পরিজনের ছোড়া ইটের আঘাতে মাথা ফাটল এক জুনিয়র ডাক্তারের। NRS-কাণ্ডের প্রতিবাদ আগুনের মতো ছড়িয়ে পড়েছে গোটা রাজ্যে। বুধবারও কর্মবিরতিতে অনড় জুনিয়র ডাক্তাররা। মঙ্গলবার রাত থেকেই বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজের পরিস্থিতি ভয়াবহ হয়ে ওঠে।

রাত আড়াইটে নাগাদ দুই পুলিশ কর্মীকে পেটানোর অভিযোগ উঠেছে জুনিয়র ডাক্তারদের বিরুদ্ধে। কারণ জানতে চাইলে সবাই মুখে কুলুপ আঁটে।বুধবার জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতিতে সকাল থেকেই বন্ধ আউটডোর। সকালে এক মহিলা তাঁর রোগীকে দেখতে হাসপাতালে যান। হাসপাতালের নিরাপত্তাকর্মীরা ওই মহিলাকে মারধর করেন বলে অভিযোগ। তিনি অজ্ঞান হয়ে যান। এরই মধ্যে দলে দলে মানুষ ভিড় জমিয়েছে হাসপাতাল চত্বরে।

আউটডোর বন্ধ থাকায় বর্ধমান মেডিক্যালের টিকিট কাউন্টার ভাঙচুর করেন রোগীর পরিজনেরা। রাস্তা অবরোধও করা হয়।বেলা বাড়লে পরিস্থিতি আরও অগ্নিগর্ভ হয়ে ওঠে। হাসপাতালের মেন গেট বন্ধ করে দেওয়া হলে তা ভেঙে ভেতরে ঢোকার চেষ্টা করেন রোগীর পরিজনেরা। তখনই তাঁদের সঙ্গে খণ্ডযুদ্ধ বাঁধে হবু ডাক্তারদের। ইটের আঘাতে মাথা ফাটে এক ইন্টার্নের। পালটা মারধর চালায় জুনিয়র ডাক্তাররাও। খবর সংগ্রহ করতে যাওয়া এক সাংবাদিককে রাস্তায় ফেলে মারার অভিযোগ উঠেছে ইন্টার্নদের বিরুদ্ধে।

বর্ধমান মেডিক্যাল কলেজের সুপারকেও জুনিয়র ডাক্তাররা পুলিশের সামনেই বেধড়ক মারধর করে বলে অভিযোগ। চশমা ভেঙে যায় সুপারের। ভিতরে কোনও সাংবাদিককে ঢুকতে দেওয়া হয়নি।

Krishna Chandra

Krishna Chandra, a political writer, likes to write on Recent activitis of India as well as Bengal. B.tech in Mechanical Engineering .Email: krishnagarain.smart@gmail.com

Related Articles

Close