রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা কে নিয়ে অখুশি মুখ্যমন্ত্রী, রাতারাতি বদল খাদ্য সচিব সহ দুই জেলাশাসক..

গোটা দেশজুড়ে চলছে লকডাউন আর এরকম এক পরিস্থিতিতে রাজ্যের রেশন ব্যবস্থা কে নিয়ে অখুশি প্রকাশ করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রাজ্যে রেশন ব্যবস্থা কে নিয়ে অখুশি প্রকাশ করার পাশাপাশি এক খাদ্য সচিব সহ 2 জেলা শাসকের বদল করলেন এর দরুন।বৃহস্পতিবার দিন নবান্নে তরফ থেকে এক বিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে যেখানে রাজ্যের একাধিক জায়গায় রেশন বিলি কে নিয়ে প্রথম থেকে একাধিক অভিযোগ শোনা যাচ্ছিল।

কোথাও কোথাও অভিযোগ শোনা যাচ্ছিল যে রেশনের দোকান খোলা হচ্ছে না ঠিকমত আর খোলা হলেও ঠিকমতো সামগ্রী মিলছে না, এমনটাই অভিযোগ তুলছিল জনসাধারণ সহ বিরোধীরাও। তাই এ রাজ্যে এরকম এক রেশন ব্যবস্থাকে নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করলেন রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও। আর প্রাপ্ত খবর অনুযায়ী জানতে পারা যায় এই দিন মুখ্যমন্ত্রী যে বৈঠক করেন সেখানে উপস্থিত ছিলেন খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক তার ওপর ও এই বিষয় নিয়ে ক্ষোভ প্রকাশ করেন মুখ্যমন্ত্রী।এর পাশাপাশি খাদ্য সচিবের দায়িত্বে থাকা মনোজ আগরওয়ালকে সে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার নির্দেশ জারি করেন তিনি। আর মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ পাওয়া মাত্রই সে পদ থেকে অপসারণ করা হয়েছে খাদ্য সচিব মনোজ আগরওয়াল কে এবং বর্তমানে তাকে কম্পালসারি ওয়েটিং এ পাঠানো হয়েছে।বর্তমানে তার জায়গায় নতুন করে খাদ্য সচিব যাকে বানানো হয়েছে তার নাম পারভেজ আহমেদ সিদ্দিকী সেইসঙ্গে বদল করা হয়েছে পশ্চিম বর্ধমান ও দার্জিলিং জেলা শাসককে। এইদিন মন্ত্রীসভায় সবচেয়ে বেশি সময় ধরে রেশন নিয়ে বিভিন্ন দিক নিয়ে আলোচনা করা হয় সেই সময় আলোচনার মধ্যে জেলা ধরে ধরে পরিস্থিতির খোঁজখবর নেন মুখ্যমন্ত্রী এবং বিভিন্ন জায়গা থেকে আসা অভিযোগের ভিত্তিতে, এই পদক্ষেপ গুলি গ্রহন করা হয়েছে।আর আগামী দিনে যেন এরকম কোন ভুল ত্রুটি না হয় সেগুলি সংশোধনের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি খাদ্যমন্ত্রী কে। সেইসময় মুখ্যসচিবকে বলেন খাদ্য সচিবের কাজে তিনি খুশি নন।তাই এই দায়িত্ব থেকে তাকে সরিয়ে দেয়া হোক এবং অন্য কাউকে এই দায়িত্বে নিযুক্ত করা হোক।আর মুখ্যমন্ত্রী এরকম এক নির্দেশ মেলা মাত্রই গতকাল সন্ধ্যেবেলায় সেই নির্দেশ পালন করেন মুখ্যসচিব দায়িত্ব দেওয়া হয় অন্য কাউকে।

Related Articles

Close