ভারতকে লজ্জার হাত থেকে বাঁচালেন চেতেশ্বর পুজারা, একটি অসাধারণ ইনিংস খেলে গড়ে তুললেন….

চেতেশ্বর পূজারা কে শুধুমাত্র টেস্ট খেলতেই দেখা যায় তাই তিনি অত ফ্যান ফেভারেট হয়ে না উঠলেও। চেতেশ্বর পুজারা যদি গতকাল তাড়াতাড়ি আউট হয়ে যেতেন তাহলে অস্ট্রেলিয়ার বিরুদ্ধে ভারতের প্রথম টেস্টে কি অবস্থা হতো তা ভাবতেই পারতো না ক্রিকেটপ্রেমীরা। কে এল রাহুল, মুরলী বিজয়ের মতো তো স্টাইল না মারলেও,এই সাদামাটা ক্রিকেটার চেতেশ্বর পুজারা গতকাল ইন্ডিয়া কে প্রথম ইনিংসে এক সম্মানজনক স্কোরে পৌঁছে দিয়েছেন। প্রথম ইনিংসে ভারত 250 রানের যে বন্দী পেরিয়েছে তার একমাত্র কারণ হল চেতেশ্বর পুজারার অনবদ্য সেঞ্চুরি(123)। এমন একটা সময় ছিল যেখানে 85 রানে 5 মূল্যবান উইকেট পড়ে গিয়েছিল ভারতের। ভারতীয় অধিনায়ক বিরাট কোহলি প্রথম ব্যাট করার সিদ্ধান্ত নেন। প্রথম এক ঘন্টা নতুন বল খেলে কাটিয়ে দিলে অ্যাডিলেডের পিচ ব্যাটসম্যানদের বন্ধু হয়ে যায়।

কিন্তু এই প্রথম এক ঘণ্টার মধ্যেই ভারতের মূল্যবান উইকেট গুলো পড়ে যায় রাহুল(2), বিজয়(11), কহলি(3),রাহানেরা(13)। রোহিত শর্মা কিছুটা ভালো খেললেও খারাপ শট খেলে আউট হয়ে যান। নাথান লাইনকে ছক্কা মারার পর তার পরের বলে স্টেপ আউট করে মারতে যান,ফলে আউট হয়ে যায়। তা ঠিক পরেই পূজারার সঙ্গে সাথ দিলেন অশ্বিন(25)। ওই সময় অশ্বিন পূজারার সাথ যদি না দিত তাহলে ভারতের স্কোর যে কোথায় দাঁড়াতো তার কোন ঠিক নেই।তবে অজি বোলারদের প্রশংসা না করে থাকা যায় না। হ্যাজেলউড, স্টার্ক, কামিন্স এবং লায়ন এই চারজন এই দারুন বল করেছে। আর ফিল্ডিং ও দারুণ করেছেন, বিরাট কোহলির একটি দারুন ক্যাচ নিয়েছেন উসমান খোয়াজারা।

প্রথম ইনিংসের শেষে অজি অধিনায়ক টিম পেইন বলেন, জশ হ্যাজেলউড আর প্যাট কামিন্স কে দলে ফিরে পাওয়াটা অনেক দরকার ছিল।’আর এটা কতটা কাজে লেগেছে তা নিশ্চয়ই সবাই বুঝতে পারছি। নতুন বল পেয়ে দারুণ সুইং করছিল হ্যাজেলউড। তবে এবার আজ ভারতের একটাই লক্ষ্য অস্ট্রেলিয়াকে 300 রানের মধ্যে আটকানো। নইলে ভারতের পক্ষে ম্যাচ জেতা খুবই কঠিন হয়ে দাঁড়াবে।