বদলে গেল চেক মারফত লেনদেনের নিয়ম! আগামী পয়লা সেপ্টেম্বর থেকে লাগু হতে চলেছে নতুন নিয়ম

১ সেপ্টেম্বর থেকে লাগু হতে চলেছে নয়া বিধি। গ্রাহকদের ক্ষেত্রে আর্থিক লেনদেনে ডিজিটাল মাধ্যম ছাড়া চেক মারফত লেনদেন হল একটি অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পদ্ধতি। তবে এবার চেক মারফত আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে কিছু নতুন নিয়মাবলী নিয়ে আসা হচ্ছে । যারা সাধারণত চেকের মাধ্যমে আর্থিক লেনদেন করে থাকেন তাদের কাছে নতুন কোন নিয়ম এলে বা নিয়মের অদল বদল হলে তা জেনে রাখা অত্যন্ত জরুরী। আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে এই সমস্ত নিয়মাবলী আপডেট না জানলে অনেক সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে গ্রাহকদের।

১ সেপ্টেম্বর থেকে লাগু হতে চলেছে একটি নতুন নিয়ম ।সমস্ত ব্যাংকে পজিটিভ পে সিস্টেম চালু হবে চেক মারফত লেনদেনের ক্ষেত্রে। ব্যাংকের তরফ থেকে জানানো হচ্ছে যাতে নির্বিঘ্ন ভাবে আর্থিক লেনদেন হয় তার জন্য এই সিস্টেম চালু করা হবে। এই সিস্টেম চালুর ফলে সমস্ত গ্রাহকদের আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে কোনো রকম কোনো অসুবিধার সম্মুখীন হতে হবে না। মূলত ৫০০০০ হাজার বা তার বেশি আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে এই সিস্টেম চালু হবে।

সূত্র মতে জানা যাচ্ছে অ্যাক্সিস ব্যাঙ্ক, স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া সহ আরো বেশ কয়েকটি ব্যাংক ১ সেপ্টেম্বর থেকেই এই নিয়ম লাগু করতে চলেছে। সমস্ত ব্যাঙ্কগুলির তরফ থেকে জানানো হয়েছে পজিটিভ পে সিস্টেম বাধ্যতামূলক করা হবে। ৫০০০০টাকা বা তার বেশি আর্থিক লেনদেনের ক্ষেত্রে গ্রাহকদের বিশদ বিবরণ দিতে হবে। সমস্ত তথ্য ডিটেলসে না থাকলে গ্রাহকদের চেক ক্যান্সেল হতে পারে ।এর ফলে লোকসানের মুখে পড়তে হবে গ্রাহকদেরই । ব্যাংক কর্তৃপক্ষ কোন দায় নেবে না।

তবে পজিটিভ পে সিস্টেম চালুর ক্ষেত্রে সমস্ত ব্যাংক একই টাকার অংক রাখেনি। এক একটি ব্যাংকের ক্ষেত্রে টাকার লিমিট আলাদা আলাদা রাখা হয়েছে। স্টেট ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া ,কোটাক ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার ক্ষেত্রে ৫০ হাজার টাকার উপর এই লেনদেনের ক্ষেত্রে চালু হচ্ছে পজিটিভ পে সিস্টেম।

অ্যাক্সিস ব্যাংকের ক্ষেত্রে সেটি দাঁড়াচ্ছে ৫ লক্ষ টাকা বা তার বেশি।উল্লেখ্য আরেকটি জানার বিষয় রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়া বহুদিন আগেই সমস্ত ব্যাংক গুলিকে এই পজিটিভ পে সিস্টেম চালুর নির্দেশ দিয়েছিল। তাই বর্তমানে এখন ব্যাঙ্কগুলি এই নিয়ম বাধ্যতামূলক করছে।