বিশ্বের কাছে পাকিস্তানের মিথ্যে “ফাঁস” করতে ভারত নিতে চলেছে নতুন পদক্ষেপ! চাপ বাড়তে চলেছে পাকিস্তানের ওপর।

পুলওয়ামায় আত্মঘাতী জঙ্গি হামলায় পর থেকে পাকিস্তানের উপর বদলার দাবিতে ফুঁসছে গোটা দেশবাসী। শুধু দেশবাসী নয়, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী বলেছেন শহীদ জাওয়ানদের রক্ত কখনো ব্যর্থ হতে দেবো না। দফায় দফায় জাতীয় নিরাপত্তা উপদেষ্টা সহ বাহিনীর সেনা আধিকারিকদের সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক করছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং।শুধুমাত্র সামরিক দিক থেকে নয়, কূটনৈতিক দিক থেকেও পাকিস্তানকে কড়া জবাব দেওয়ার জন্য ভারত ছক কষছে। আন্তর্জাতিক মহলে পাকিস্তান কে কিভাবে কোণঠাসা করা যায় তা নিয়ে দফায় দফায় বৈঠক করা হচ্ছে উচ্চ পর্যায়ে। তারই এক অংশ হিসেবে আগামীকাল অর্থাৎ বুধবার পাকিস্থানের ভারতের হাইকমিশনার অজয় বিসারিয়ার সঙ্গে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং দেখা করেন।

পুলওয়ামার হামলার পর ভারত-পাকিস্তান দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে কি এমন পদক্ষেপ নেওয়া যায় যাতে চাপে পড়বে  ইসলামাবাদ, বুধবার এই বিষয়ে হাইকমিশনারের সাথে বৈঠক করা হয় বলে খবর পাওয়া যায়।  বৈঠক শেষ হওয়ার পর বিসারিয়া জানিয়েছেন, ভারতের রাষ্ট্রদূতরা অন্যান্য দেশের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছে। তবে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক সূত্রে খবর যে, ভারত একটি নতুন ‘ডসিয়ার’ তৈরি করছে যা ভারতের সমস্ত রাষ্ট্রদূতদের হাতে তুলে দেওয়া হবে। বর্তমানে ভারতের একটাই লক্ষ্য, কিভাবে বিশ্বমঞ্চে পাকিস্তানের মিথ্যে ফাঁস করে তাদের সব দিক থেকে আলাদা করে দেওয়া। তবে শুধু বিসারিয়া নন, বুধবার সকালে আমেরিকার রাষ্ট্রদূত হর্ষবর্ধন শ্রিংলার এর সঙ্গেও বৈঠক করেন রাজনাথ সিং। পুলওয়ামা এ হামলার পর প্রধানমন্ত্রীর নরেন্দ্র মোদি ঘোষণা করে দিয়েছিলেন যে, পাকিস্তানকে বন্ধু বিচ্ছিন্ন করার জন্য সমস্ত রকম ভাবে চেষ্টা করবে ভারত।

এই কাজে আমেরিকা ফ্রান্স নিউজিল্যান্ড সহ আরো 40 টি দেশের সমর্থন পেয়েছে ভারত। কিন্তু চীন পুলওয়ামার  হামলায় আত্মপ্রকাশ শোক প্রকাশ করলেও মাসুদ আজহার সম্পর্কে কিছু বলেননি। সব মিলিয়ে ভারত চাইছে যে পাকিস্তানের সমস্ত রকম কুকর্ম যাতে সব দেশের কাছে ফাঁস হয়ে যায়।