নতুন আইন আনতে চলেছে কেন্দ্র সরকার এবার থেকে ডাক্তারদের উপর হামলা চালালে হবে 10 বছরের জেল, সঙ্গে 5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা…

কলকাতার NRS- এ ডাক্তারদের উপর হামলা জেরে কর্মবিরতিতে বসেছিল সেখানকার সকল জুনিয়র ডাক্তারের।পরে তাদের পাশে দাঁড়িয়ে ছিলো রাজ্যের অন্যান্য মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে জুনিয়র ডাক্তার সহ অনেক সিনিয়র ডাক্তারেরা। আর ডাক্তারদের সেই কর্মবিরতিতে দেশজুড়ে অনেক নেতা মন্ত্রীও তাঁদের পাশে দাঁড়িয়েছিলেন। গত 7 দিন চলেছিল কাদের কর্মবিরতি গতকাল নবান্নে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় এর সাথে আলোচনার পর তারা কর্মবিরতি তুলে নেন।

তারপর থেকে সকল জুনিয়ার ডাক্তারেরা যোগদান করেন তাদের কাজে। গত শনিবার দিন কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন চিকিৎসকদের নিরাপত্তার জন্য নতুন আইন প্রণয়নের নির্দেশ দিয়েছিলেন সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীদের। এর পাশাপাশি ওয়ার্ল্ড মেডিক্যাল অ্যাসোসিয়েশন ও স্বাস্থ্য সেবা প্রতিষ্ঠানের উপর অত্যাচারের বিরুদ্ধে একটি প্রস্তাব গৃহীত করেছে ও এই ধরনের ঘটনার বিরুদ্ধে মজবুত আইন প্রণয়নের কথা ভাবা হচ্ছে ।সূত্র অনুযায়ী জানতে পারে গেছে কেন্দ্রীয় সরকার রাজ্যের ডাক্তারদের সুরক্ষা নিয়ে বড় পদক্ষেপ নিতে চলেছে।

ডাক্তারদের সুরক্ষা দেওয়ার জন্য কেন্দ্রের সরকার একটি বড় আইন পাশ করতে চলেছে বলে খবর আসছে।এই আইনের অন্তগত ডাক্তারদের উপর হামলা করা ঘটনাকে বড় অপরাধের শ্রেণীতে ফেলা হতে পারে এবং এই অপরাধের জন্য দোষীদের আনুমানিক 10 বছরের জেলের সাজা হতে পারে।তবে শুধু তাই নয় এর পাশাপাশি 5 লক্ষ টাকা পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে সেই দোষীদের। এমন দাবি নিয়ে আইএমএ’র তরফে ইতিমধ্যেই কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রক আইনের খসড়া জমা পড়েছে । কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রী হর্ষবর্ধন সব রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী পারে বিচার করতে বলেছেন।


এবং জানিয়েছেন এই বিষয় নিয়ে তিনি খুব তাড়াতাড়ি রাজ্যের মন্ত্রীদের সাথে বৈঠক করবেন এই বৈঠকে ডাক্তারদের সুরক্ষার জন্য কঠোর আইন ছাড়াও ক্লিনিক্যাল এস্টাবলিশমেন্ট অ্যাক্টেও বদল করা হতে পারে। সব রাজ্যের সঙ্গে বিবেচনা করে ও তাদের প্রস্তাব আসার পর এই বিষয় অন্তিম সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।