২০১৬ সাল থেকে কৃষকদের আত্মহত্যার কোন তথ্য নেই কেন্দ্রর কাছে ,এমনটাই বক্তব্য কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী….

কৃষি ঋণ মুকুব কে হাতিয়ার করে বিধানসভা নির্বাচনে যখন ঘুরে দাঁড়াচ্ছে কংগ্রেস তখন দেশজুড়ে কৃষকদের আত্মহত্যা নিয়ে সরব বিরোধীদের। তবে সংসদে কেন্দ্রের দাবি তাদের কাছে কৃষকদের আত্মহত্যা নিয়ে কোন ডাটা নেই। কেন্দ্রীয় কৃষিমন্ত্রী রাধামোহন সিং লোকসভায় দাঁড়িয়ে বলেন ২০১৬ সালে কৃষক আত্মহত্যা কোন তথ্য নেই কেন্দ্রের কাছে। এ রেকর্ড গুলিসহ করে ন্যাশনাল ক্রাইম রেকর্ড ব্যুরোর। তাদের দাবি এনসিআরবি (NCRB) কাছে গত তিন বছরের কোন কৃষক আত্মহত্যা রিপোর্ট নেই। এবার তৃণমূল সাংসদ দীনেশ ত্রিবেদী সংসদে কেন্দ্রীয় কৃষি মন্ত্রীর কাছে দাবি করে বসলেন যে গত তিন বছরে অর্থাৎ ২০১৬ সাল থেকে কতজন কৃষক আত্মহত্যা করেছেন তার একটা বিস্তারিত রিপোর্ট দিতে হবে কেন্দ্রকে।

তবে এক্ষেত্রে ২০১৬ সালের পর থেকে কোন ডাটা প্রকাশিত হয়নি কৃষকদের আত্মহত্যার।কিন্তু রিপোর্টে দেখা গেছে ২০১৫ সালে দেশজুড়ে আট হাজারেরও বেশি কৃষক আত্মহত্যা করেছিলেন তার মধ্যে সবচেয়ে বেশি হয়েছিল মহারাষ্ট্রে। এই সময় মহারাষ্ট্রের তিন হাজারেরও বেশি কৃষক আত্মহত্যা করেছিলেন।এর পরেই ছিল তেলেঙ্গানা ও কর্ণাটকের নাম এছাড়া সাড়ে চার হাজারেরও বেশি কৃষি শ্রমিক বা ক্ষেতমজুর আত্মহত্যা করেছিলেন। তবে এক্ষেত্রে বেশি ভাগই আত্মহত্যার মেন কারণ ছিল কৃষি ঋণের বোঝা ও দেউলিয়া হয়ে যাওয়া। রিপোর্ট অনুযায়ী এটাও জানা গেছে ২০১৪ সালে ভারতে কৃষক আত্মহত্যা সংখ্যা ছিল ৫৬৫০ ও জনের বেশী।

More Stories
“পাকিস্থান কুলভূষণকে ফাঁসি দিলে, উত্তরপ্রদেশের জেলে থাকা ১০ পাকিস্থানিকে ঝুলিয়ে দেব ” – বললেন উত্তরপ্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ।