এক দেশ এক রেশন কার্ডের নকশা বানালো কেন্দ্র, এবার দেশের যেকোন প্রান্তে আপনি পাবেন রেশনের সুবিধা…

মোদী সরকার ফের একবার দেশের সাধারন মানুষদের জন্য নতুন পদক্ষেপ নিতে চলেছেন। এবার থেকে আলাদা আলাদা রাজ্যে আর রেশন কার্ড বানাতে হবে না। একটি রেশন কার্ড থাকলে আপনি ভারতের যে কোনো জায়গার রেশন দোকান থেকে রেশন নিতে পারবেন। নরেন্দ্র মোদীর সরকার এক দেশ এক রেশন কার্ড (One Nation One Ration Card)নামক যোজনা চালু করতে চলেছেন। মোদী সরকার যে সস্তায় রেশন দেওয়ার কথা বলেছেন তা দেশের সব সাধারণ মানুষ একই দামে পাবেন।

আর এই মুহূর্তে কেন্দ্র সরকারের তরফ থেকে এক দেশ এক রেশন কার্ডের স্ট্যান্ডার্ড ফরমেটের নকশা বানিয়ে ফেলা হয়েছে এবং রাজ্য সরকার গুলিকে ইতিমধ্যে নির্দেশ দেওয়া হয়েছে এটি অনুসরন করে নতুন রেশন কার্ড ইস্যু করতে।আর সরকারের তরফ থেকে অনুমান করা হচ্ছে আগামী 2020 সালে জুন মাসের মধ্যেই গোটা দেশজুড়ে এই ব্যবস্থা চালু করা হয় যাতে।এখনো পর্যন্ত বিভিন্ন রাজ্যের রেশন কার্ড বিভিন্ন।

এর ফলে যারা কাজের জন্য এক রাজ্য থেকে অন্য রাজ্যে যায় তাদের আবার নতুন করে রেশন কার্ড বানাতে হয় এবং নতুন রেশন কার্ড বানানোর জন্য তাদের কে অনেক ঘোরাঘুরি ও করতে হয়, যা এবার থেকে আর করতে হবে না তাদের। এছাড়াও বিভিন্ন রাজ্যে রেশন এর দাম বিভিন্ন। আর এমনি যার যতটা রেশন প্রাপ্য তাকে ততটা পরিমানে রেশন দেওয়া হচ্ছে না বলে অভিযোগ উঠছে বিভিন্ন জায়গা থেকে। তাই এবার এই কার্ডের মাধ্যমে সুবিধাভোগী ন্যাশনাল ফুড সিকিউরিটি অনুসারে দেশের যেকোনো রেশন দোকান থেকে এই কার্ড দেখিয়ে তাদের প্রাপ্ত রেশন সংগ্রহ করতে পারবেন।

এই নতুন রেশন কার্ডে কী কী লাভ পাওয়া যাবে – এই নয়া নিয়মে এবার থেকে এক জন মানুষের একটি রেশন কার্ড থাকবে যেটা সারা দেশে মান্য হবে।আপনি দেশের যে কোনো জায়গায় থাকুন না কেন যেকোনো রেশন দোকান থেকে আপনার প্রাপ্য রেশন নিতে পারবেন। এমনকি সরকারের তরফ থেকে রেশন এর যে দাম নির্ধারিত করবে সেই দামেই দেশের প্রতিটি রেশন দোকান থেকে রেশন পাওয়া যাবে। যার যতটা রেশন প্রাপ্য সে ততটাই পাবে, আর তার কাছ থেকে এক টাকাও বেশি নেওয়া হবে না।

এই বিষয়ে বিস্তারিত ব্যাখ্যা দিতে গিয়ে এক অধিকারের জানান, নতুন যে স্ট্যান্ডার রেশন কার্ড তৈরি করা হচ্ছে তার মধ্যে কার্ড হোল্ডার এর নূন্যতম তথ্য থাকা প্রয়োজনীয় আর তার মাধ্যমেই রাজ্য এক্ষেত্রে আরও কিছু বিস্তারিত জানতে পারবে।আর জাতীয় পোর্টেবিলিটি বজায় রাখার জন্য দুটি ভাষায় লেখা হবে এই নতুন কার্ড যার মধ্যে থাকবে আঞ্চলিক ভাষা এছাড়াও রাখা হবে হিন্দি বা ইংরেজি। নতুন রেকর্ড গুলি তৈরি করা হবে সেগুলিতে থাকবে 10 সংখ্যার কোড যার মধ্যে প্রথম দুটি সংখ্যা থাকবে সে রাজ্যের কোড।

এই নতুন নিয়ম লাগু করার পিছনে উদ্দেশ্য কি :–
এই নিয়ম লাঘু করার প্রধান উদ্দেশ্য হল রেশন এর সমস্ত দূর্নীতি বন্ধ করা। এই দূর্নীতির কারনে বহু মানুষ তাদের প্রাপ্য রেশন পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছেন। এটি যাতে না হয় তার জন্য এমন পদক্ষেপ নেওয়া হচ্ছে বলে জানা গিয়েছে। বিভিন্ন রাজ্যের বিভিন্ন রেশন কার্ড নিয়ে সাধারণ মানুষদের যে সমস্যার মুখে পড়তে হচ্ছে তার থেকে মুক্তি পাওয়া যাবে এর ফলে। এখন থেকে সারা দেশে এই নিয়ম চালু করা হবে । বিভিন্ন সূত্র থেকে খবর পাওয়া যাচ্ছে এই নিয়ম আর এক বছরের মধ্যে চালু করা হতে পারে।

এই কাজের জন্য সবার প্রথমে সমস্ত রেশন দোকানে পিওএস মেশিন লাগানো হবে। এর ফলে রেশন কার্ড ধারণ যেকোনো রেশন দোকান থেকে সঠিক দামে রেশন নিতে পারবেন।

Related Articles

Close