এখন বাড়িতে বসেই করতে পারবেন রোজগার, কেন্দ্রীয় সরকার নিয়ে এলো দুর্দান্ত সুযোগ

বর্তমান পরিস্থিতিতে করোনা সময় কালে অনেক মানুষ কাজ হারিয়েছেন, অনেক মানুষ নিজের কাজের জায়গা ছেড়ে ফিরে গেছেন তাদের বাড়ি,কেউ চাকরি হারিয়ে খুলেছেন নিজের ব্যাবসা।তবে এই পরিস্থিতিতে ব্যাবসায়ীদেরও সময় খারাপ চলছে। কেউ করছে নিজের গ্রামে থেকেই কৃষিকাজ, অনেকেই আছেন যারা কাজ হারিয়ে নিজের গ্রামে থেকেই এই পরিস্থিতিতে কাজ খুঁজে বেড়াচ্ছেন। তাদের জন্য আছে একটি সুখবর।

আপনাদের জন্য সরকার নিয়ে এসেছে একটি দারুণ প্রকল্প। আপনি যদি শিক্ষিত হন ও গ্রাম থেকেই আপনি পারবেন এই প্রকল্পের মাধ্যমেই রোজকার করতে। এই প্রকল্প সরকারের ডিজিটাল ভারতের আওতায় পড়ছে, আপনাকে প্রথমে রেজিস্টার করতে হবে, সেখান থেকেই আপনাকে প্রশিক্ষণ দেওয়া হবে, প্রশিক্ষণ শেষে আপনাকে দেওয়া হবে শংসাপত্র, তারপরেই আপনি শুরু করতে পারবেন কাজ।

এই স্কিলটির উদ্দেশ্যে একটাই, গ্রামীণ যুবকদের ডিজিটাল ভারতের ব্যাপারে আরও বেশি আগ্রহী করা ও প্রত্যেক গ্রামে ডিজিটাল ইন্ডিয়ার সুযোগ সুবিধা পৌঁছে দেওয়া। এই প্রশিক্ষণের মাধ্যমে আপনি আপনার গ্রামে খুলতে পারেন কমন সার্ভিস সেন্টার, এবং এই সাইটের মাধ্যমে করোনার যাবতীয় আপডেট পান।

আপনি যদি চান কমন সার্ভিস সেন্টার খুলতে, তাহলে আপনাকে ঠিক কী কী করতে হবে জেনে নিন :—

* সর্বপ্রথম আপনাকে জানতে হবে কম্পিউটার চালাতে

* তারপর আপনাকে করতে হবে এই প্রকল্পের সাইটে গিয়ে রেজিস্টার। Csc.gov.in

* আপনাকে রেজিস্টার করতে গেলে প্রথমে ১৪০০ টাকা এখানে দিতে হবে

* এই সাইট থেকে একটি ফর্ম আপনাকে দেবে সেটা আপনাকে ফিল আপ করতে হবে, সর্বোপরি রেজিস্ট্রেশন করার পরে আপনি কোন গ্রামীণ এলাকায় কমন সার্ভিস সেন্টার খুলতে চান সেই জায়গার নাম দিতে হবে।

করোনা আবহে দুর্দান্ত সুখবর! প্রায় 40 হাজারের বেশি ফ্রেশারকে নিয়োগ করতে চলেছে TCS

* ফ্রম ফিল আপের পর আপনি পেয়ে যাবেন আপনার নামের একটি আইডি, সেখান থেকে আপনি আপনার অ্যাপ্লিকেশনটি ট্র্যাক করে দেখতে পারবেন।

* আপনি আপনার এই কেন্দ্রে বিভিন্ন কাজ করতে পারেন যেমন, আপনি বিমানের টিকিট কাটতে পারবেন, মোবাইল রিচার্জ করতে পারবেন, অনলাইন যে কোন কোর্স, রেলের টিকিটের বুকিং, কৃষি পরিষেবা আরও অনেক রকম কাজ আপনি করতে পারবেন, এর জন্য সরকার আপনার থেকে কোন রকম টাকা নেবে না, আপনি আপনার মত এলাকায় আপনার কাজের যা দাম তা নির্ধারন করতে পারবেন।